যাত্রীদের জন্য ফেরিতে জায়গা পাচ্ছে না অ্যাম্বুলেন্স

যাত্রীদের জন্য ফেরিতে জায়গা পাচ্ছে না অ্যাম্বুলেন্স

কৃষ্ণ চন্দ্র রাজবংশী, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : যাত্রীর জন্য ফেরিতে জায়গা পাচ্ছে না অ্যাম্বুলেন্স লাশবাহী বা গুরুতর অসুস্থ রোগী বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স পারাপারের জন্য সীমিতভাবে ফেরি চলাচল করছে পাটুরিয়া দৌলতদিয়া নৌরুটে। এসব ফেরিতে উঠে ভিড় করছে ঘরমুখো যাত্রীরা। যার কারণে অ্যাম্বুলেন্স জায়গা পাচ্ছে না ফেরিতে।

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায় এমন চিত্র দেখা যায়। ভোর থেকে সকাল সোয়া ১১টা পর্যন্ত পাটুরিয়া ফেরিঘাট থেকে দৌলতদিয়া ঘাটে চলে মোট ৮টি ফেরি। প্রতিটি ফেরিতেই কয়েকশ করে যাত্রী নৌরুট পারাপার হচ্ছে।

www.linkhaat.com

ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের চাপ রয়েছে ঢাকা আরিচা মহাসড়ক ও পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকায়। যাত্রীদের চাপ সামাল দিতে স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করছে বিজিবি। পাটুরিয়া ফেরিঘাট হয়ে রাজধানীর সঙ্গে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রায় ২১টি জেলার কয়েক লক্ষাধিক মানুষের যাতায়াত। প্রতিটি ঘাট হয়ে গড়ে প্রতিদিন আড়াই হাজার যানবাহন পার হয়।

তবে ঈদসহ যেকোন উৎসবে এই যানবাহনের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় কয়েকগুন। কিন্তু করোনা ভাইরাস সংক্রামণ রোধে দেশব্যাপী চলছে লকডাউন। বন্ধ রয়েছে দূরপাল্লার যানবাহন এবং ফেরি চলাচল। অ্যাম্বুলেন্স পারাপারের জন্য কিছু ফেরি থাকলেও এসব ফেরিতে উঠে ভিড় করছে ঘরমুখো যাত্রীরা। যাত্রীদের ভিড়ে নাকাল অ্যাম্বুলেন্স চালকেরা। অ্যাম্বুলেন্স বহনের জন্য কোন ফেরি পন্টুনে আসামাত্রই লোকে লোকারণ্য হয়ে যায় ফেরি। অসহায় অবস্থায় পড়ে দাঁড়িয়ে থাকে অ্যাম্বুলেন্স চালকেরা। পুলিশের অনুরোধে কোন রকমে ফেরিতে ঠাঁই হয় অ্যাম্বুলেন্সের।

ফেরিঘাট এলাকার ৩ নাম্বার পন্টুনে আলাপ হলে ঘরমুখী যাত্রী দিলরুবা মিম বলেন, ঈদের উদ্দেশ্যে পরিবার নিয়ে শশুর বাড়িতে ঈদ করতে যাচ্ছেন তিনি। স্বামীর ছুটি না হওয়ায় তিনি পরে আসবেন। নানা প্রতিকূলতা পাড়ি দিয়ে এভাবেই প্রতি ঈদে শশুড়বাড়ি গিয়ে ঈদ করেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আফসার মিয়া নামে মধ্য বয়সী এক যাত্রী বলেন, গাজিপুর থেকে তিন দফায় গাড়ি পাল্টে ঢাকা আরিচা মহাসড়কের টেপড়া এলাকা পর্যন্ত আসেন তিনি। এরপর ৮কিলোমিটর পায়ে হেঁটে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় এসে দেড় ঘন্টা যাবৎ ফেরির অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ফেরিঘাটের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে শিবালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ কবির বলেন, ঘাট এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থানা পুলিশের একাদিক টিম কাজ করছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্পোরেশন আরিচা কার্যালয়ের ডিজিএম জিল্লুর রহমান বলেন, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে লাশ ও গুরুতর রোগী বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স পারাপারের জন্য দুইটি ফেরি চলছে। এসব ফেরিগুলোতে করে ঘরমুখো যাত্রীরা নৌরুট পারাপার হচ্ছে।

স/এষ্

Print Friendly, PDF & Email
Spread the love

Warning: A non-numeric value encountered in /home/chomoknews/public_html/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 997