ঢাকারবিবার , ২৮ এপ্রিল ২০২৪
  1. Bangla
  2. chomoknews
  3. English
  4. অপরাধ
  5. অভিনন্দন
  6. আমাদের তথ্য
  7. কবিতা
  8. কর্পরেট
  9. কাব্য বিলাস
  10. কৃষি সংবাদ
  11. খুলনা
  12. খোলামত
  13. গল্প
  14. গাইড
  15. গ্রামবাংলার খবর
আজকের সর্বশেষ

সালথায় টিউবওয়েলের পানি পান করে ৩ শিক্ষক ও ১০ শিক্ষার্থী অসুস্থ

abu naser
এপ্রিল ২৮, ২০২৪ ৫:৩৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সালথায় টিউবওয়েলের পানি পান করে ৩ শিক্ষক ও ১০ শিক্ষার্থী অসুস্থ
সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি: ফরিদপুরের সালথায় তীব্র তাপদাহের মধ্যে টিউবওয়েলের পানি পান করার পর বিষ আতংকে ৩ শিক্ষক ও ১০ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। অসুস্থদের মধ্যে ১০ শিক্ষার্থীসহ তিন শিক্ষককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ রবিবার (২৮ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের রামকান্তুপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সালথা থানার ওসি ঘটনাস্থল পরিবদর্শন করেন। তবে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের দাবি, পানি খেয়ে নয়- গরমে ও মনের ভয়ে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।
পানি খেয়ে অসুস্থ রামকান্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা সুকলা রানী বলেন, রোজার ঈদের পর থেকে স্কুল বন্ধ ছিল। প্রধান শিক্ষকও মাতৃত্বকালিন ছুটিতে রয়েছেন। দীর্ঘদিন পর রবিবার স্কুল খোলা হয়। সকালে স্কুলে এসে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিয়ে প্রথমে বিদ্যালয়ের ক্লাস রুম ও মাঠে জমে থাকা ময়লা-আবর্জনা পরিস্কার করার কাজ শুরু করি। এসময় গুইসাপ মরা ছিলো বারান্দায়। তারপর আবার বাথরুম করে রেখেছিলো যেন কে। এইসবের গন্ধে আমি কয়েকবার বমি করি। তখন এক ছাত্র এসে বলে ম্যাডাম টিউবয়েলের পানিতে বিষ আছে। এই আতংকে পানি করা শিক্ষার্থীরা ভয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। আমিসহ অসুস্থ সবাইকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়।
স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কামাল বিশ্বাস বলেন, খবর পেয়ে স্কুলে এসে অসুস্থ সবাইকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পাঠানো হয়।এরমধ্যে রানিতা নামে এক শিশুর অবস্থা বেশি খারাপ হওয়ায় তাকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি সবাই সুস্থ আছে।
সালথা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুল মমিন দুপুরে বলেন, টিউবওয়েলের পানিতে কোন ধরণের বিষক্রিয়া পাওয়া যায়নি। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, ওই শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা গরমে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। অসুস্থদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে সবাই শঙ্কামুক্ত।
সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফায়েজুর রহমান বলেন, আমরা প্রথমে খবর পেয়েছিলাম টিউবওয়েলের পানি খেয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। পরে ঘটনাস্থলে এসে ডা. এর সঙ্গে যোগাযোগ করেছি, তিনি জানিয়েছেন টিউবওয়েলের পানিতে বিষক্রিয়ার কোন লক্ষণ পাননি।
সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনিছুর রহমান বালী বলেন, রবিবার স্কুল খোলার পর শিক্ষক-শিক্ষাথীরা সকালে স্কুলে এসে টিউবওয়েলের পানি খেয়ে অসুস্থ পড়লে তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এখন সবাই মোটামুটি সুস্থ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাদের জানিয়েছেন, তারা বিষক্রিয়ার কোনো আলামত পাইনি। গরমের কারণেও এ ঘটনা ঘটতে পারে। তারপরেও টিউবওয়েলের পানি আমরা পরীক্ষা করে দেখবে। একইসাথে আগামীকাল থেকেই ছাত্রছাত্রীরা যাতে নিরাপদ পানি খেতে পারে, সে ব্যবস্থা করা হবে।