কার্ডিফে ইংল্যান্ডের ছুঁড়ে দেয়া ৩১১ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৮৭ রান দূরে আটকে গেছে নিউজিল্যান্ড।  মঙ্গলবার জয় হাতছাড়া করায় কেন উইলিয়ামসনের দলকে শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে নামতে হবে।  অস্ট্রেলিয়া নিজেদের শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে হারলে, আর কিউইদের বিপক্ষে বাংলাদেশ জিতলে সেমির টিকিট কাটবে টাইগাররাই।

সেমিতে যেতে নানা সমীকরণ সামনে আসায় কার্ডিফের ম্যাচের দিকে গভীরভাবে নজর রেখেছিল বাংলাদেশও।  ইয়ন মরগ্যানের

দল তাতে জিতে সবার আগে সেমির টিকিট কেটে মাশরাফিদের জন্যও সুযোগের পথটা আরেকটু প্রশস্ত করে রাখল।  তবে ইংলিশরা যদি অজি ম্যাচে হেরে বসে তখন সেমিতে যাওয়া হবে না টাইগার-কিউইদের কারোই।

সোফিয়া গার্ডেনে শুরুতে ব্যাট করে ৪৯.৩ ওভারে গুটিয়ে যাওয়ার সময় ৩১০ রান তোলে ইংল্যান্ড।  জবাবে ৪৪.৩ ওভারে ২২৩ রানেই গুটিয়ে গেছে নিউজিল্যান্ড।

লুক রঞ্চিকে (০) হারিয়ে শুরু হলেও গাপটিল-উইলিয়ামসনের ৬৩ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল কিউইরা।  মার্টিন গাপটিল ২৭ রানে সাজঘরে ফিরলে রস টেইলরকে নিয়ে ৯৫ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের পথেই রেখেছিলেন উইলিয়ামসন।

অধিনায়কের ফেরার পরই আসলে পথ হারাতে থাকে কিউইরা।  ৮ চারে ৮৭ রানে সাজঘরে হাঁটা দেন উইলিয়ামসন।  দ্রুত তাকে অনুসরণ করেন টেইলর (৩৯)।

পরে আর কেউ ইনিংস গড়ে পারেনি।  নেইল ব্রুম ১১, জেমস নিশাম ১৮, কোরি অ্যান্ডারসন ১০, মিচেল স্যান্টনার ৩ রানে কেবল পরাজয়ের রাস্তাই খুঁড়েছেন।

স্বাগতিকদের হয়ে লিয়াম প্লাঙ্কেট ৪ উইকেট নিয়ে সেরা।  ২টি করে উইকেট গেছে জ্যাক বল ও আদিল রশিদের ঝুলিতে।  একটি করে উইকেট মার্ক উড ও বেন স্টোকসের।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ওপেনার জেসন রয়ের (১৩) আরেকটি ব্যর্থতার মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছিল ইংলিশদের।  সেখান থেকে ৮১ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের ভিত এনে দেন অ্যালেক্স হেলস এবং জো রুট।  ৫৬ রানে হেলস আউট হলেও একপ্রান্ত সামলে খেলে গেছেন রুট।  ৬৫ বলে ৪ চার এবং ২ ছয়ে করেছেন ৬৪ রান।

ইংল্যান্ড তিনশো রানের কোটা পেরোতে পেরেছে অবশ্য জস বাটলারের অপরাজিত ৬১ রানের সুবাদে।  অলরাউন্ডার বেন স্টোকস করেছেন ৪৮ রান।  এই নিয়ে শেষ ১৩ ম্যাচের ১১টিতেই ৩০০-এর বেশি সংগ্রহ গড়ল ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা।

অ্যাডাম মিলনে ও কোরি অ্যান্ডারসন ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন।  ২টি টিম সাউদির।  একটি করে গেছে ট্রেন্ট বোল্ট ও মিচেন স্যান্টনারের ঝুলিতে।

বৃষ্টির বাধায় গ্রুপ পর্বের দুটি ম্যাচ বাতিল হয়ে যাওয়ায় কঠিন হিসেব দাঁড়িয়ে গেছে গ্রুপ এ-এর দলগুলোর সামনে।  উদ্বোধনী ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে ও কিউই ম্যাচে জয় পাওয়ায় ৪ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত টেবিলের শীর্ষে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।  নিউজিল্যান্ড এবং বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচ দুটি প্রকৃতির বাধায় পরিত্যক্ত হওয়ায় অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহও ২ পয়েন্ট।  কিউই এবং টাইগারদের পয়েন্ট এক করে।

অস্ট্রেলিয়া শেষ ম্যাচে জিতলে ইংল্যান্ডের সমান ৪ পয়েন্ট নিয়ে সেমিতে যাবে।  তখন বাদ নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশ।  আর অজিরা হারলে কিউই-টাইগার ম্যাচের জয়ী দল সেমিতে ইংলিশদের সঙ্গী হবে এই গ্রুপ থেকে।

স/এষ্
print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন

Power by

Download Free AZ | Free Wordpress Themes