জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘দেশে একবার মুক্তিযুদ্ধের সরকার আরেকবার রাজাকারের সরকার এভাবে চলতে থাকলে খুনিরা মন্ত্রী হবে, খুনোখুনি বাড়বে। বাংলাদেশে আর রাজাকারের সরকার চাই না। আগামী নির্বাচনের পর খুনোখুনি বন্ধ হোক। খালেদা জিয়া আপনি জামায়াত, জঙ্গি, যুদ্ধাপরাধীদের পাশে রাখেন। খালেদা জিয়ার ক্ষমতা মানে রাজাকারের ক্ষমতা। ‘ শুক্রবার বিকালে বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদের সামনে মাটিডালিতে কেন্দ্রীয় জাসদ নেতা ইমদাদুল হক ইমদাদের ছেলে স্কুল ছাত্র মাশুক ফেরদৌস এর খুনিদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, যদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টার বিচার করি তাহলে খালেদা ও তারেক ফেঁসে যাবে। আমরা মাশুকের মত সকল হত্যাকান্ডের বিচার চাই। প্রশাসন সঠিকভাবে কাজ করলে শেখ হাসিনার সরকারের সুনাম হয়। আর না করলে বদনাম হয়। চোখ বন্ধ করে খুনিদের গ্রেফতার করুন। আমরা কাউকে ঘায়েল ও আক্রমন করতে চাই না। আমরা কারো বাড়িঘর ভাংচুর করবো না। বিচার না পেলে পুলিশ অফিস ঘেরাও করবো। গ্রামের খুনোখুনি বন্ধ করতে চাই। রাজনীতিতে খুনোখুনি বন্ধ করতে চাই। মানুষ পুড়িয়ে যেন হত্যা না করা হয়, সেজন্য সকল হত্যার বিচার চাই। মাশুক খুনের সাথে জড়িতরা কেউ রক্ষা পাবে না। আমরা বলছি যারা জড়িত তাদের গ্রেফতার করুন। জড়িতদের অবশ্যই ফাঁসির দড়িতে যেতে হবে।

প্রতিবাদ সমাবেশে বগুড়া জেলা জাসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইকবাল হোসেন খান রতনের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি আব্দুল হাই তালুকদার মিরাজ ও শফিউদ্দিন মোল্লা,  যুগ্ম সম্পাদক ওবায়দুর রহমান চুন্নু, নিহত মাশুকের বাবা কেন্দ্রীয় জাসদ সদস্য এ্যাডঃ ইমদাদুল হক ইমদাদ, জাসদ নেতা রোকনুজ্জামান রোকন, আইনুর রহমান, জিএম আলো, এ্যাডঃ হাবিবুর রহমান হাবিব, সাজ্জাদ হোসেন সাজ্জাদ, আব্দুল লতিফ পশারি ববিসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আগত নেতারা।

উল্লেখ্য, গত ১৩ মে রাতে নিজ বাড়ির পাশে বগুড়া এসওএস স্কুলের ৯ম শ্রেণীর ছাত্র মাশুক ফেরদৌস মাশুককে মাথায় আঘাত করে হত্যা করা হয়। হত্যার পর জাতীয় ক্রিকেট দলের টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম এর বাবা মাহবুব হামিদ তারা ও তার চাচা মেজবাউল হামিদসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে বগুড়া সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়। এই মামলায় বাদি হয়েছেন নিহত মাশুকের বাবা জাসদ নেতা এ্যাডঃ ইমদাদুল হক ইমদাদ। ওই ঘটনায় পুলিশ নাইম নামের এক তরুণকে গ্রেফতার করে। পরে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে তাকে।

স/এষ্

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন