খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠিতে আলোচিত কৃষক আব্দুর রব হত্যা মামলায় চারজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে দশ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার দুপুরে ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. বজলুর রহমান এ রায় দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ঝালকাঠির রাজাপুরের দক্ষিণ তাঁরাবুনিয়া গ্রামের মো. শহিদ হাওলাদার, পরেশ কাপালী, উত্তর তাঁরাবুনিয়া গ্রামের সাইদুর রহমান দুলাল ও নাজিমুর রহমান মন্টু। রায় ঘোষণার সময় নাজিমুর রহমান মন্টু ছাড়া অন্য তিন আসামি উপস্থিত ছিলেন।

রাস্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন ঝালকাঠি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি এম আলম খান কামাল এবং আসামি পক্ষে আব্দুর রশিদ সিকদার।

আসামি পক্ষের আইনজীবী আব্দুর রশিদ সিকদার মামলার বিবরণে জানান, তাঁরাবুনিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুর রবের সাথে তাস খেলাকে কেন্দ্র করে আসামিদের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ২০১০ সালের ৮ অক্টোবর বাড়ি থেকে আব্দুর রবকে ডেকে নিয়ে যায় আসামি মো. শহিদ হাওলাদার ও পরেশ কাপালী। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। নিখোঁজের ১৪ দিন পরে ২২ অক্টোবর বাড়ির পাশের একটি ডোবা থেকে তাঁর মস্তক বিহীন লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় আব্দুর রবের স্ত্রী ময়না বেগম বাদী হয়ে গত ২২ অক্টোবর রাজাপুর থানায় দুইজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। রাজাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এ কে এম মোতালেব হোসেন মামলাটি তদন্ত শেষে চারজনের বিরুদ্ধে ২০১২ সালের ২৬ অক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

বাদী পক্ষ মামলায় রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন, আর রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিলের কথা জানিয়েছেন আসামি পক্ষের আইনজীবী আব্দুর রশিদ সিকদার।

স/এষ্

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন