ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ছাগলে পাট খাওয়াকে কেন্দ্র করে ওহিদুল ইসলাম (৪০) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা আহত হয় করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে সে মারা যায়। ওহিদুল উপজেলার খামারমুন্দিয়া গ্রামের গোলাপ হোসেন শেখের ছেলে। এ ঘটনায় শহিদুল ও সাদ্দাম নামের ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে একই গ্রামের শাহাজানের পাট ক্ষেতে বিল্লালের ছাগল প্রবেশ করে জমির পাট খায়। এ ঘটনায় যোগযোগ সৃষ্টি হলে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে দুলালমুন্দিয়া বাজারে শালিস ডাকা হয়। ওই শালিসী সভায় হামলা চালিয়ে ওহিদুল কে কুপিয়ে মারাতœকভাবে আহত করা হয়। তাকে প্রথমে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওহিদুল মারা যায়। সে সময় ইসমাইল মেম্বর নামের ৪/৫ জন আহত হয়।

কালীগঞ্জ থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ছাগলে পাট খাওয়া কে শালিসী সভায় হামলায় ওহিদুল আহত হয়। যশোর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। তিনি আরো জানান, অভিযোগ পেলে যারা এ ঘটনায় সাথে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স/এষ্

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন