স্মার্টকার্ড নিতে চোখের আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ বাদ দেওয়া সংক্রান্ত নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের দেওয়া প্রস্তাব নাকচ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। গত বৃহস্পতিবার ইসি সচিবালয় ও জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ (এনআইডি) চোখের আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ ছাড়াই স্মার্টকার্ড বিতরণের প্রস্তাব করে।

মঙ্গলবার কমিশন সভায় ওই প্রস্তাব নাকচ করে দেওয়া হয়। ইসি সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ এ তথ্য জানান।

ইসি সচিব বলেন, ‘৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে চোখের আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ ছাড়ায় স্মার্ড কার্ড বিতরণ করার প্রস্তাব আমি ও এনআইডির উইং কমিশন বৈঠকে উপস্থাপন করি। দ্রুত স্মার্টকার্ড বিতরণ করতে এ প্রস্তাব দেওয়া হলেও কমিশন বৈঠকে তা বাতিল করা হয়।’

এর আগে বৃহস্পতিবার ইসি সচিব জানিয়েছিলেন, প্রকল্পের নির্ধারিত মেয়াদে স্মার্টকার্ড বিতরণ কার্যক্রম শেষ করতে চোখের আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ বাদ দেওয়ার পক্ষে ইসি সচিবালয়। এছাড়া মামলার জটিলতার কারণেও আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ সংক্রান্ত মেশিন শিগগিরই কেনা সম্ভব হচ্ছে না। এ জন্য আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ ছাড়াই আগামীতে স্মার্টকার্ড বিতরণ করা হবে। কারণ ডিসেম্বরের মধ্যে কার্ড বিতরণের কথা রয়েছে। আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ নিয়ে স্মার্ট কার্ড বিতরণ করতে গেলে ওই সময়ের মধ্যে তা সম্ভব হবে না।

চোখের আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ বাদ দেওয়ার প্রস্তাবের পর সমালোচনার মুখে পড়ে ইসি। কারণ চোখের আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ ছাড়া স্মার্টকার্ড বিতরণ করলে এর মূল উদ্দেশ্যে ব্যাহত হবে। বিদ্যমান লেমিনেটিং করা জাতীয় পরিচয়পত্রের পরিবর্তে চোখের আইরিশ ও দশ আঙুলের ছাপ ছাড়া স্মার্টকার্ড দিলে দৃশ্যমান কোনো পার্থক্য থাকতো না। এছাড়া ইসি সচিবালয়ের এ ঘোষণায় ক্ষুব্ধ হন পাঁচ সদস্যের বর্তমান নির্বাচন কমিশন। এ কারণেই মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত কমিশন সভায়   সচিবালয়ের দেওয়া প্রস্তাব নাকচ করে ইসি।

স/এষ্‌

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন