মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার পশ্চিম শিয়ালদি গ্রামে নিরীহ দিনমজুরের মালিকানাধীন লিজের সম্পত্তি দখলের পায়তারা করছে একটি ভূমি দস্যু সিন্ডিকেট। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানাযায়, পশ্চিম শিয়ালদি গ্রামের মৃত- কাশেম ঢালীর ছেলে দিনমজুর মো: বাদল ঢালী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ০৩-০২-১৯৯৩ সালে ৩৯২ নং দলিলে ৫০ শতাংশ নাল জমি বন্ধবস্ত নেন। স্থানীয় সুত্র জানায়, বন্ধবস্ত নেওয়ার পর থেকে বাদল ঢালী জমিটি ভোগ দখল করেন। প্রভাবশালী ভুমি সিন্ডিকেট চক্রটি নিরীহ দিনমজুর বাদলের জমিটি দখল করে নেওয়ার নানা পায়তারা শুরু করে। এতে বাঁধা দিলে বাদলকে মারধর করে শাহাজান ঢালী গংরা। এ ঘটনায় বাদল মুন্সীগঞ্জ আদালতে একটি মামলা করেছে। আর এ মামলার স্বাক্ষীদেরকেও ভুমি দস্যুরা হুমকি প্রদান করে যাতে তারা কোর্টে গিয়ে স্বাক্ষী না দেয়। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদল সিরাজদিখান থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেন। যাহার নং- ১০৬৭ তাং ২৮-০১-১৭। উক্ত ডায়েরী করার পর থেকে ভুমি দস্যুরা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে। বর্তমানে দিনমজুর বাদল তাদের ভয়ে এলাকায় যেতে পারছেনা। ভুক্তভোগী বাদল ঢালী জানান, লিজ নেওয়ার পর থেকে আমি জমিতে চাষাবাদ করে সংসার চালাতাম। কিন্তু গত- ২ বছর ধরে স্থানীয় চেয়ারম্যানের ইন্দনে একই গ্রামের মো: শাহজাহান ঢালী, আমিনুল ঢালী, কামাল উদ্দিন বেপারী,এই লিজি সম্পত্তি নিজেদের দাবি বলে করে আসছে। আর তাতে সরাসরি ইন্দন দিচ্ছেন বর্তমান ইছাপুরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মতিন হালদার। এই লিজি সম্পত্তি এবং আমাকে মারধর করার ঘটনায় মুন্সীগঞ্জ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি সি আর মামলা করি যাহার নং- ৩০/২০১৭।মামলাটি চলমান আছে। মামলার স্বাক্ষীদের নানাভাবে ভয়বীতি ও হুমকি দেওয়া হচ্ছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাজাহান ঢালীর সাথে একাধিবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
ইছাপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমি এ ব্যাপারে কিছুই জানিনা আমার শত্রু পক্ষের লোকদের কথা শুনে বাদল আমাকে জড়াতে চেষ্টা চালাচ্ছেন।

স/ এষ্

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন