লম্বা ব্যাটিং লাইন আপ করার পরিকল্পনা রোডসের

নিউজ ডেস্ক: অচিরেই বিশ্বকাপ। ক্রিকেট বিশ্বের জন্য মহাযজ্ঞ। আর এই মহাযজ্ঞে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশ। তাই এই মহারণকে সামনে রেখে অনেক প্রস্তুতিই নিয়েছেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ স্টিভ রোডস। ইংল্যান্ডের কন্ডিশনে নতুন পরিকল্পনা এঁকেছেন তিনি। বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ বড় করার দিকে নজর রয়েছে তার।

এবারের বিশ্বকাপে অধিকাংশ ম্যাচই ৩০০ এর বেশি স্কোরের ম্যাচ হওয়ার কথা। ইংল্যান্ডের উইকেট সচারাচর বোলিং বান্ধব থাকে তবে এবারের বিশ্বকাপে ব্যাটিং বান্ধব উইকেটই হওয়ার কথা। এই ব্যাটিং বান্ধব উইকেট হলে রান কেমন হতে পারে সেটি তো দেখাই গিয়েছে ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজে।

তাই তো বাংলাদেশের কোচ রোডস তেমন পরিকল্পনা করেই এগোচ্ছেন। বিশ্বকাপের জন্য তার মূল পরিকল্পনা এই ব্যাটিং বান্ধব উইকেটে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ যতটা বড় করা যায়। ১-৭ পর্যন্ত মূল ব্যাটসম্যানরাই খেলবে। আটে ও নয়ে দেখা যেতে পারে সাইফউদ্দিন ও মেহেদী হাসান মিরাজকে। এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

“লম্বা ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে খেলার চেষ্টা করছি। সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি যাতে কেবল একজন বোলার থাকে যে ব্যাটিংয়ে অতো পারদর্শী নয়, তিনজন নয়। আমার মনে হয় এটা বড় রান করতে সাহায্য করবে। যখন অনেক বড় রান তাড়া করতে হবে তখন শেষ দিকে তিন-চার ওভারে অনেক উইকেট পড়তে পারে।”

তিনি আরও যোগ করেন, “ঝড়ো ব্যাটিং করার ক্ষমতা সাব্বিরের রয়েছে। শেষের রান বাড়ানোর সামর্থ্য তার রয়েছে। যদি ওভারপ্রতি ৭ করে প্রয়োজন তাহলেও তার বোঝার ক্ষমতা রয়েছে যে কাজটা তারই শেষ করে আসতে হবে। মাহমুদউল্লাহর বেলাতেও ব্যাপারটা একই।

মোসাদ্দেক কি করতে পারে আপনারা দেখেছেন। এছাড়া মিরাজ, মিঠুন, সাইফুদ্দিনকে আমরা শেষ পর্যন্ত ব্যাট করতে দেখতে চাই। পাঁচ, ছয়, সাত , আট, নয় এমন পজিশনে তারা খেলবে। মাশরাফিও মারতে পারে। বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ রোডসের বক্তব্য শুনে বোঝাই যায় বিশ্বকাপের জন্য নিজের শীর্ষদের কতটা প্রস্তুত করছেন তিনি।

স/লাহা

Print Friendly, PDF & Email