দোষ করল ফেরদৌস, ফাসলো শুভ!

চমক প্রতিবেদক : ভারতের জাতীয় নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় নেমে ‘পাপ’ করেছিলেন বাংলাদেশি চিত্রনায়ক ফেরদৌস। আর এ পাপে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার তাৎক্ষণিকভাবে বাতিল করে বাংলাদেশি নায়কের ওয়ার্ক পারমিট। পাশাপাশি ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ফেরদৌসকে ফিরে আসতে হয় দেশে।

ঘটনার কয়েক সপ্তাহ পরে এখন প্রকাশ হয়েছে নতুন তথ্য। ফেরদৌস কাণ্ডে ভারত সরকার আপাতত আর কোনো অভিনয় শিল্পীকে আর ওয়ার্ক পারমিট দেবে না। এতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পরও কোলকাতার একটি ছবি থেকে বাদ পড়লেন বাংলাদেশি নায়ক আরেফিন শুভ।

জানা যায়, কোলকাতার ‘অভিযাত্রিক’ সিনেমায় অপু চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল আরিফিন শুভর। সব কিছু ঠিক থাকলে ১৫ মে ছবিটির শুটিংয়ে অংশ নিতেন শুভ। কিন্তু শুটিং শুরু মাত্র ৪ দিন আগেই দুঃসংবাদ পেলেন ঢাকাই সিনেমার এই নায়ক। ছবি থেকে বাদ পড়ে গেছেন তিনি।

আরিফিন শুভর ভক্তদের জন্য এটা অবশ্যই দুঃসংবাদ। এক মেইল বার্তায় ভারতের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান গৌরাঙ্গ ফিল্মস জানিয়েছে, অনভিপ্রেত সামাজিক ও রাজনৈতিক কারণে আরিফিন শুভর সঙ্গে তারা কাজ করতে পারছে না। তবে এই সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে শুভর সঙ্গে আলোচনা করেছে প্রযোজনা সংস্থাটি।

সিনেমাটির পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘ফেরদৌস আর নূরের বিতর্কিত কাণ্ডের কারণে কোনো বাংলাদেশি শিল্পীকে ওয়ার্ক পারিমিট দেয়া হচ্ছে না। সেজন্য ছবিটিতে আরিফিন শুভর অভিনয় করা হচ্ছে না। ফেরদৌস ও নূর যে কেনো তখন নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ নিতে গেলেন! প্রচুর টাকা ক্ষতি হয়ে গেলো আমাদের। সব চূড়ান্ত করে ফেলেছিলাম আমরা।

মে মাসের ১৫ তারিখ থেকে শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল। আমদের পুরো টিম কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়েছে। এখন রাতারাতি কাউকে রিপ্লেসমেন্টও করা যাচ্ছে না। গত কয়েকমাস ধরে ছবিটি নিয়ে পুরো টিম পরিশ্রম করে যাচ্ছিল। এখন সেই পরিশ্রমটাই বৃথা গেলো। আমরা দিল্লিতে শুভর ভিসার বিষয়ে আলাপ করেছিলাম। কিন্ত কাজ হয়নি। এই পরিস্থিতিতে ছবির কাজটা পিছিয়ে গেলো। এ বছর ছবির কাজ শুরুই করতে পারবো না।’

কলকাতার পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র ‘অপরাজিত’ উপন্যাসের শেষ ১০০ পৃষ্ঠা অবলম্বনে ‘অভিযাত্রিক-দ্য ওয়ান্ডার লাস্ট অব অপু’ নামে একটি সিনেমা নির্মাণ করছেন। সেখানে অপু চরিত্রে থাকার কথা ছিল শুভর।

প্রসঙ্গত, বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘পথের পাঁচালি’ এবং ‘অপরাজিত’ উপন্যাসকে সত্যজিৎ রায় তিন ভাগে ভাগ করে ট্রিলজি (‘পথের পাঁচালি’, ‘অপরাজিত’ এবং ‘অপুর সংসার’) নির্মাণ করেছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email