লক্ষ্য ফাইনাল, যে একাদশে মাঠে নামবে বাংলাদেশ

রাহুল রাজ : আপাতত লক্ষ্য বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল। সেই বিশ্ব আসরের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজে পূর্ণ আত্মবিশ্বাসে আছে বাংলাদেশ। চূড়ান্ত অনুশীলন সেরে নিচ্ছে এই আসরে। পয়েন্ট তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থেকে জয়ের লক্ষ্যে কাল সোমবার(১৩ মে) উজ্জীবিত ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ।

ডাবলিনের মালাহাইডে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৪৫ মিনিটে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে, দারুণ এক মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন টাইগারদের অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। এ ম্যাচে বাংলাদেশের হয়ে জয় পেলেই অধিনায়ক হিসেবে জয়ের দিক দিয়ে নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি স্পিনার ও সাবেক অধিনায়ক ড্যানিয়েল ভেট্টোরিকে ছাড়িয়ে যাবেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার আগে ৮২টি ওয়ানডেতে কিউইদের নেতৃত্ব দেন ভেট্টোরি। তার অধীনে ৪১ ম্যাচে জয় পায় কিউইরা। মাশরাফীর নেতৃত্বে এখন পর্যন্ত ৭৪টি ওয়ানডে খেলেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে জয় পেয়েছেন ভেট্টোরির সমান ৪১ ম্যাচে আর হেরেছেন ৩১টিতে।

উইন্ডিজদের বিপক্ষে জয় পেলে আরও একটি কীর্তি গড়ে ফেলবেন মাশরাফী। ৪২ জয়ে তখন ভারতের সাবেক অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়ের পাশে উঠে আসবেন নড়াইল এক্সপ্রেস। ২০০০ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত দ্রাবিড়ের নেতৃত্বে ৭৯ ওয়ানডেতে ৪২টি জয় পেয়েছিল টিম ইন্ডিয়া।

এদিকে টুর্নামেন্টের প্রথম পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারিয়ে শুভসূচনা করে ছিল বাংলাদেশ। সেদিন বাংলাদেশের বিপক্ষে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শাই হোপের সেঞ্চুরির সুবাদে ৯ উইকেটে ২৬১ রানের লড়াকু সংগ্রহ পেলেও, তামিম ইকবাল-সৌম্য সরকার ও সাকিব আল হাসানের হাফ-সেঞ্চুরিতে ৫ ওভার আর ৮ উইকেট হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার দল।

ওয়স্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ পাঁচ ওয়ানডে ম্যাচের চারটিতেই জয়ের দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ। সেই আত্মবিশ্বাসে এগিয়ে থাকবে বাংলাদেশ।

শেষ ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের দেয়া ৩৩১ রানের জয়ের লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছে ক্যারিবিয়রা। ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে ক্যারিবিয়দের পক্ষে এখন যা সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতে রেকর্ড গড়ার পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজও আছে দারুন ছন্দে।

ইতিমিধ্যেই ৩ ম্যাচের ২টিতে জিতে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে উইন্ডিজ। অন্যদিকে নিজেদের প্রথম ম্যাচে উইন্ডিজদের সাথে জিতলেও আইরিশদের সাথে পরের ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় ফাইনাল এখনো নিশ্চির করতে পারেনি বাংলাদেশ৷ তাই কালকের ম্যাচটি টাইগারদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

একাদশে আগামীকাল ১টি বা ২ টি পরিবর্তন হতে পারে বাংলাদেশের ছন্দে না থাকা মোস্টাফিজকে রেস্ট দিয়ে একাদশে আনা হতে পারে রুবেল হোসেনকে। ও সাইফউদ্দিনকে বসিয়ে পরখ করে দেখার জন্য দলে আনা হতে পারে তাসকিন আহমেদকে। এছাড়া ব্যাটিং অর্ডার যথারীতি আগের মতই থাকার সম্ভাবনা।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ :

তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিথুন, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, সাইফউদ্দিন, মেহেদি মিরাজ, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ।

সূত্র মতে, বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের এ ম্যাচেও উইকেট কথা বলবে ব্যাটসম্যানদের হয়ে। জানা গেছে, ডাবলিনে সোমবার ঠাণ্ডা একটু বেশি থাকবে। আকাশে মেঘ জমবে। তবে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।

বাংলাদেশের বিপক্ষে হারের আগে, জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করে উইন্ডিজরাও। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেই উড়ন্ত সূচনা পায় তারা। স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে রেকর্ড জুটি গড়া জন ক্যাম্পবেল ও শাই হোপের জোড়া সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ওভার শেষে, ৩ উইকেটে ৩৮১ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে ক্যারিবিয়রা। জবাবে ১৮৫ রানেই গুটিয়ে যায় আইরিশরা।

গতকাল শনিবার (১১ মে) আয়ারল্যান্ডকে দ্বিতীয়বারের দেখায়ও পরাজিত করে জেসন হোল্ডারের দল। ফাইনাল নিশ্চিত করার ম্যাচে স্বাগতিকদের উইন্ডিজরা হারিয়েছে ৫ উইকেটে।

প্রথম পর্বের ম্যাচে বাংলাদেশের ফাইনাল টিকেটও এতক্ষণে নিশ্চিত হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। তবে প্রথম ম্যাচ জয়ের পর টাইগারদের দ্বিতীয় ম্যাচ ভেস্তে যায় বৃষ্টির কারণে। ফলে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই খুশি থাকতে হয় বাংলাদেশকে।

এদিকে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে টানা দুই হার আর এক ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার কারণে ফাইনালে ওঠার পথ অনেক কঠিন হয়ে গেছে আয়ারল্যান্ডের জন্য। বাংলাদেশ যদি নিজেদের শেষ দু’ম্যাচে হারে এবং আয়ারল্যান্ড যদি নিজেদের শেষ ম্যাচ জিতে পারে তবেই ফাইনালে যাবার সুযোগ তৈরি হবে স্বাগতিকদের।

যদিও এতসব সমীকরণ নিয়ে মাথা ঘামাতে নারাজ বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি সিরিজে নিজেদের উজার করে দিতে মরিয়া টাইগাররা। দেশ ছাড়ার আগে এমনটাই জানিয়েছিল বাংলাদেশ। একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে হারলেও, দুর্দান্তভাবে টুর্নামেন্ট শুরু করতে পেরে খুশি ছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। কিন্তু পরের ম্যাচে মাঠেই নামতে না পারায় হতাশা প্রকাশ করেন বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস। সেই সঙ্গে সমালোচনা করেন টুর্নামেন্টের পয়েন্ট গ্রেডিং পদ্ধতির।

আয়ারল্যান্ড-ইংল্যান্ডের বর্তমান কন্ডিশন নিয়েও হতাশা প্রকাশ করতে দেখা গেছে রোডসকে। টাইগার কোচ বলেছেন, ‘আয়ারল্যান্ড ও ইংল্যান্ডে এই মৌসুমটায় বৃষ্টিতে খেলা পরিত্যক্ত হয়। কিন্তু সামনে আমাদের অনেক ম্যাচ। ওই হিসেবে অনুশীলনগুলো মিস করা নিয়ে আমি সত্যিই শঙ্কিত। আশা করছি আবহাওয়া ভালো হয়ে উঠবে!’

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নিজেদের পারফরম্যান্সে ধারাবাহিকতা চান রোডস। এমন ইঙ্গিত দিয়ে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের দলের প্রধান লক্ষ্যই হলো দলের পারফরম্যান্সে আরও ধারাবাহিকতা আনা। যদি সেটা করতে পারি তাহলে মনে করি বিশ্বকাপে অনেক দূর পর্যন্ত যেতে পারবো।’

মোস্তাফিজুরকে দলের বাহিরে রেখে একাদশ সাজানোর পরিকল্পনা রয়েছে নির্বাচকদের। সেই সাথে একাদশে দেখা যেতে পারে লিটন দাসকে। তবে সে ক্ষেত্রে কে ছিটকে পড়বে সেটা জানতে একটু অপেক্ষা করতে হবে। লিটন দাস একাদশে যোগ হলে তাকে ছেড়ে দিতে হবে উদ্ভোধনী স্থান। প্রথম ম্যাচে ১৪৪ রানের জুটি পরে তামিমের সঙ্গী হবে সৌম্য সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Print Friendly, PDF & Email