এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৪৮ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ২২৩ রানের টার্গেট দিয়েছে বাংলাদেশ। শুরুতে টাইগারদের ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছিল ৩শ হবে টাইগারদের স্কোর। কিন্তু সেই আশার রান আর হলো না। টাইগারদের একে একে উইএকেট বিসর্জনে সহজ টার্গেট পায় ভারত।

ডিপ মিডউইকেট দিয়ে কুলদীপ যাদবকে ছক্কায় উড়ানোর পর এই চায়নাম্যানকে উইকেট দিয়ে ফিরে গেলেন মাশরাফি। কুলদীপের পরপর দুই ওভারে স্টাম্পড হলেন দুই জন ব্যাটসম্যান। বেরিয়ে এসে কুলদীপকে ছক্কা হাঁকাতে চেয়েছিলেন মাশরাফি। ব্যাটে বলে করতে পারেননি, বল গ্লাভসে জমিয়েই বেলস ফেলে দেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। সপ্তম উইকেট হারালো বাংলাদেশ। মাশরাফির বিদায়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ চলে যায় ভারতের হাতে।

এর আগে ১১৭ বলে ১২১ রান করে রান আউটের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান লিটন দাস। যদিও তার আউট নিয়ে বিতর্ক আছে। এটি তার ক্যারিয়ারে সর্বোচ্চ ইনিংস এবং ফাইনালে বাংলাদেশের প্রথম কোন শতক। মিরাজ-লিটনের জুটিতে দুর্দান্ত শুরু হলেও ৩২ রানে মিরাজের বিদায়ের পর ধ্বসে পড়ে মিডেল অর্ডার। মুশফিক ও মাহমুদুল্লাহর বিদায়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যেতে থাকে বাংলাদেশ।

অপরদিকে আজকের ম্যাচে সবাইকে চমকে দিয়ে লিটনের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নেমেছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। যিনি জাতীয় দলে কখনোই এ পজিশনে খেলেননি। যদিও এমন চমকের আভাস আগেই দিয়েছিলেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ
বাংলাদেশঃ ২২২/১০ (৪৭.৩ ওভার)
টার্গেটঃ ২২৩ রান

এশিয়া কাপের ফাইনাল ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেছে বাংলাদেশ। শুক্রবার দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিকেল ৫টায় শুরু হয় ম্যাচটি। টস জিতে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান। টাইগার একাদশে এসেছে এক পরিবর্তন। মুমিনুল কে বসিয়ে নামানো হয়েছে বাহাতি স্পিনার নাজমুল অপুকে। সাকিবের অভাব পূরণ করতেই অপুকে সুযোগ দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের একাদশ: লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, মোহাম্মদ মিঠুন, সৌম্য সরকার, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

ভারতের একাদশঃ রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, রাইডু, ধনি, দীনেশ কার্তিক, কেদার যাদব, রবীন্দ্র যাদেযা, ভুবেনশ্বর কুমার, কলদীপ যাদব, চাহাল, যাসপ্রিত ভুমরা।

এসএ

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন