নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জ ও নারায়নগঞ্জ সীমানাবর্তী চর সৈয়দপুরে প্রিমিয়ার সিমেন্টে কারখানা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে স্থানীয় কৃষকদের ১১ একর ৩ শতাংশ জমিতে জোর পূর্বক ভবন নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে । জমির মালিক ও আদালতের মামলা সুত্রে জানাগেছে, নারায়নগঞ্জ থানাধীন ১৭৭নং সৈয়দপুর মৌজায় আর এস ১ এবং ৩ নং খতিয়ানে ১১ একর তিন শতাংশ জমি নিয়ে নারায়নগঞ্জ আদালতে একাধিক মামলা চলমান রয়েছে। সম্প্রতি ফৈজউদ্দিন নামের এক জমির মালিক নারায়নগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধি ১৪৫ ধারায় মামলা করে। আদালত মামলা আমলে নিয়ে বিবাদমান জমিতে নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার একটি অস্থায়ী নিষেজ্ঞা প্রদান করে। রবিবার সকালে প্রিমিয়ার সিমেন্ট কারখানার শ্রমিকরা দখলকৃত জায়গায় জোর পূর্বক স্থায়ী স্থাপনা নির্মাণ কাজ করিতেছে। এমন সংবাদ পেয়ে চর সৈয়দপুর গ্রামের জমির মালিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে বাঁধা প্রদান করে। এসময় প্রিমিয়ার সিমেন্ট কারখানা সাইড ইনচার্জ মুসা , কারখানার লেবার, বহিরাগত সন্ত্রাসীরা লোহার রড ,লাঠিসোটা নিয়ে জমি মালিকপক্ষের লোকজনের উপর হামলা করে তাদেরকে গুরুত্বর আহত করে। এতে জমির মালিক পক্ষের ৭ জন আহত হয়।
এক অংশের জমির মালিক আলী আহম্মেদ জানান, কারখানার ইনচার্জরা আগে থেকেই বহিরাগত সন্ত্রাসী এনে রেখেছিলো । আমরা ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর পর তারা লৈাহার রড দিয়ে পিটিয়ে আমাকেসহ অনেককে আহত করে। এসময় তাদের হামলায় যারা আহত হয়েছে তারা হলেন, মোতালেব (৩০), আ: রহিম(৪০), জুয়েল (২২)সহ আরো অনেকে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।
হামলার বিষয়ে জানতে চেয়ে প্রিমিয়ার সিমেন্ট কারখানার সাইড ইনচার্জ মূসা মুঠোফোনে বলেন, আমি অসুস্থ্য অফিসের বাইরে আছি আপনি অফিসে গিয়ে জানুন। এই বলে ফোন রেখে দেয় পরে একাধিকবার ফোর করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।
এ ব্যাপারে নারায়নগঞ্জ সদর থানার এস আই এনায়েত জানান, সকালে দু”পক্ষের লোকজনই উত্তেজিত হয়েছিলো । আমরা দু’পক্ষকে শান্ত করেছি এবং বিষয়টি স্থানীয়ভাবে বসে মিমাংসা করার জন্য পরামর্শ দিয়েছি।
স/রহ

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন