‘পপগুরু’ বা ‘পপসম্রাট’ খ্যাত বাংলা সঙ্গীতের সম্রাট আজম খানের জন্মদিন মঙ্গলবার। ১৯৫০ সালের এই দিনটিতে ঢাকার আজিমপুরে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। পুরো নাম মোহাম্মদ মাহবুবুল হক খান। বাবা আফতাব উদ্দিন খান ছিলেন সরকারি চাকরিজীবী। মা জোবেদা বেগম সঙ্গীতশিল্পী।

মায়ের অনুপ্রেরণায় শৈশব থেকেই সঙ্গীতে নিয়মিত চর্চা। ১৯৬৬ সালে তিনি সিদ্ধেশ্বরী হাইস্কুল থেকে এসএসসি এবং ১৯৬৮ সালে টিঅ্যান্ডটি মহাবিদ্যালয় থেকে এইচএসসি পাস করেন। ষাটের দশকে পশ্চিমা ধাঁচের পপ গানে দেশজ বিষয়ের সংযোজন ও পরিবেশনার স্বতন্ত্র রীতিতে বাংলা গানে নতুন মাত্রা যোগ করেছিলেন আজম খান।

শ্রোতাদের কাছে তখন এ ধরনের গান ছিল একেবারেই নতুন। এই নতুন ধারার গানের পথিকৃৎ হিসেবে তিনি শ্রোতাদের কাছে ‘পপ সম্রাট’ বা ‘পপ গুরু’ হিসেবে সম্মানিত হন। আজম খানের মাধ্যমেই উন্মোচিত হয়েছিল এ সঙ্গীতের এক অন্যধারা। দেশীয় পপগানের আকাশে তিনি ঘটিয়েছিলেন নতুন সূর্যোদয়।

অপরাজেয় এক যোদ্ধা আজম খান। অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেছিলেন দেশমাতৃকার মুক্তির জন্য। জীবন বাজি রেখে ছিনিয়ে এনেছিলেন বিজয়। যুদ্ধোত্তর দেশে সূচনা করেছিলেন আরেক সংগ্রামের। সে সংগ্রাম নতুন ধারার সঙ্গীত সৃষ্টির। সংস্কৃতির অচলায়নে তুমুল আলোড়ন তুলে স্বাধীন দেশে পাশ্চাত্য সঙ্গীতের ধারার সঙ্গীত রচনা ও পরিবেশনার মধ্য দিয়ে তারুণ্যের দুর্দমনীয় বাঁধভাঙা স্পন্দন বইয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

বাংলাদেশের পপসঙ্গীতের পথিকৃৎ হিসেবে তার গান ঠাঁই করে নেয় দেশের সঙ্গীতপ্রিয় কোটি শ্রোতার হৃদয়ে। উল্লেখ্য, এক বছর ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে ২০১১ সালের ৫ জুন ৬১ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন জনপ্রিয় এ সঙ্গীতশিল্পী।

স/শা

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন