মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বাইরে রাস্তার উপর মো: নুরু শেখ (৪৮) নামের এক বিচার প্রার্থীর উপর প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে । বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে কোর্ট সংলগ্ন সিএনজি স্টান্ডে এ ঘটনা ঘটে। প্রতাক্ষ্যদর্শীদের সুত্রে জানাগেছে, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের কারনে প্রতিপক্ষের নামে মামলা করার জন্য আদালতে আসেন নুরু শেখ । নুরু শেখ টঙ্গিবাড়ী উপজেলার হাট বালিগাঁও গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলী শেখের ছেলে । আদালতের বাইরে নাস্তা খাওয়ার জন্য সিএনজি স্টান্ডের একটি হোটেলে যান তিনি। এ সময় নুরু শেখের ভাতিজা সবুজ শেখ ও তার মামা আলীসহ ৪-৫ জনের একটি সন্ত্রাসী দল নুরুকে এসেই মারধর শুরু করে । তারা নুরু শেখকে জোর পূর্বক সিএনজিতে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায়। নুরু শেখ কান্নাকাটি করে সিএনজি থেকে নেমে পড়ে । এ সময় ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা তাকে এলাপাথারি কিল, ঘুষি মারে এবং বেধরক পিটিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় নুরু শেখ বাদী হয়ে সবুজ শেখ ও আলীসহ অজ্ঞাতনাম ৪-৫ জনকে আসামী করে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

সন্ত্রাসী হামলা শিকার মো: নুরু শেখ জানান, আমার আপন ভাই এবং ভাতিজার সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিলো । এ নিয়ে আদালতে একাধিক মামলা চলমান রয়েছে। আজকে আমি আমার আইনজীবির কাছে নতুন করে মামলা করিতে আসি। মামলা করার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করে সকালের নাস্তা খেতে আদালতের বাইরে একটি হোটেলে যাই । এ সময় সবুজ শেখ ও আলীসহ ৪-৫ সন্ত্রাসীরা গ্রুপ আমাকে টেনে হিচড়ে মারতে মারতে সিএনজি স্টান্ডে নিয়ে আসে এবং আমাকে সিএনজি যোগে তুলে নেওয়ার চেষ্টা করে। স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায় । আমি থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি ।
এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসাইন জানান, এ ঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
স/রহ

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন