বাঘারপাড়া পৌরসভার মেয়র কামরুজ্জামান বাচ্চুর  বিরুদ্ধে টেন্ডার জালিয়াতির অভিযোগ উঠারর প্রক্ষিতে সোমবার বিকালে বাঘারপাড়া সদরে সচেতন নাগরিক সমাজের ব্যানারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে।

স্থানীয় ঠিকাদার আকবর আলীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাঘারপাড়া উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, পৌর যুবলীগ নেতা এনায়েত হোসেন লিটন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বায়েজিদ হোসেন, রিয়াদ হোসেন প্রমুখ। সমাবেশে বক্তরা বলেন,বাঘারপাড়া পৌর সভার দুই কোটি টাকার উন্নয়ন কাজের টেন্ডার হয়েছে। কোন নিয়ম না মেনেই বাঘারপাড়া পৌর মেয়র কামরুজ্জামান উক্ত টেন্ডার আহবান করেছেন। টেন্ডার আহবানের আগে নিয়ম অনুযায়ি টেন্ডার কমিটির একটি সভা হওয়ার কথা থাকলেও মেয়র কামরুজ্জামান তা মানেননি। তিনি টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ গোপন রাখার জন্য অখ্যাত প্রত্রিকায় টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছেন। তিনি কোন পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করিয়েছেন তা পৌর সভার প্রকৌশলীও জানেন না। আমরা জানতে পেরেছি, টেন্ডার সিডিউল ক্রয়ের শেষ তারিখ ছিলো ০১/০৭/২০১৮। এর আগ পর্যন্ত তিনি অতি কৌশলে বিষয়টি গোপন রাখেন। তার পছন্দের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কামাল এন্টারপ্রাইজ ও সরোয়ার এন্টারপ্রাইজ এর নামে কাজ নিয়ে তিনি নিজেই কাজ করবেন এমন অভিযোগও করেন বক্তারা।  মেয়র কামরুজ্জামান শুধু টেন্ডার আহবানেই জালিয়াতি করেননি, তিনি গত ২০১৬-’১৭ ও ২০১৭-’১৮ অর্থ বছরের এডিবির কাজেও অনিয়ম করেছেন। তিনি উক্ত কাজের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সাথে কোন প্রকার আলোচনা না করেই অনিয়মের মাধ্যমে নিজেই নাম মাত্র কাজ করে বিল উত্তোলন করেছেন। এ বিষয়টি সংশ্লিষ্ঠ কতৃপক্ষকে তদন্ত করার দাবিও জানান বক্তরা।

এ বিষয়ে বাঘারপাড়া পৌরসভার মেয়র কামরুজ্জামান বাচচু বলেন, নিয়ম অনুযায়ি বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত দুইটি জাতীয় দৈনিকে ( দৈনিক আজকের সংবাদ ও ডেইলি ইন্ডাষ্ট্রি) টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। এমনকি অনলাইনেও দেওয়া হয়েছে। সব নিয়ম মেনেই টেন্ডার আহ্বান করা হয়েছে। এর পরেও ঠিকাদারগণ যদি না জানেন তা হলে আমার করার কিছুই নেই।

আরআর

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন