মোঃ আজম খাঁন,বাঘারপাড়া(যশোর) থেকে : “গরীব বলে কি আমার সন্তান চিকিৎসা পাবে না ?” পৃথিবীর রূপ-রস-গন্ধ-স্পর্শ বুঝে উঠার আগেই কঠিন রোগে আক্রান্ত তিন মাসের অবুঝ শিশু তন্নি। তন্নি বাঘারপাড়া উপজেলার ধলগাঁরাস্তার পার্শে অবস্থিত দাতপুর গ্রামের ভ্যানচালক মিলন হোসেনের মেয়ে।
তন্নির মা মর্জিনা বেগম জানান, জন্মের পর থেকে তার মাথা শরীরের তুলনায় বড় হতে থাকে । ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে দুরারোগ্য রোগ ধরা পড়ে। যার চিকিৎসা অতান্ত ব্যায়বহুল ও সময় সাপেক্ষ।এ বিষয়ে যশোরের সহকারি সিভিল সার্জন ডা: হারুন -অর রশিদ জানিয়েছেন তন্নি যে রোগে ভুগছে তাকে মেডিকেলের ভাষায় হাইড্রোকেফালাস বলে। যার চিকিৎসা খুবই ব্যয়বহুল ।
তিনি আরো জানান, প্রায় বার লাখ টাকা ব্যায়ে অস্ত্রপচারের মাধ্যমে এ রোগের চিকিৎসা সম্ভব । কিন্তু ভ্যান চালক মিলনের পক্ষে এতো টাকা ব্যয় করা সম্ভব নয়। সে সামান্য একটু ভিটার উপর ঘর বেধে বসবাস করছে। মেয়ের চিকিৎসার জন্য সহায় সম্বল সবই বিক্রি করে ফেলছে । মিলন হোসেন তার মেয়ের জীবন বাঁচাতে সমাজের বিত্তশালী ও দানশীল ব্যক্তিদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে। দেশের বিত্তশালী দানশীল ব্যক্তিগন সাহায্যের হাত বাড়ালেই একজন অসহায় পিতা-মাতার সন্তান পৃথিবীর আলো-বাতাসে বেড়ে উঠতে পারে। সাহায্য পাঠানো যাবে ০১৮৫৫৬৯৭৯২৯ বিকাশ নম্বরে ।

আরআর

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন