মেহেদী জামান লিজন, জাককানইবি প্রতিনিধিঃ
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনা উন্নয়ন ও ওয়ার্কস দপ্তর চলছে অপরিকল্পিত ভাবে। ২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়টি এক যুগের কাছাকাছি এসেও পূর্ণ রুপ পায়নি । বারবার পরিকল্পনা পরিবর্তন হতেও দেখা গেছে । যার মূল কারণ হিসেবে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বলছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের নির্দিষ্ট সময় পর দাপ্তরিক পরিবর্তন । এক এক প্রশাসকের দৃষ্টিভঙ্গি একেক রকম । যেহেতু স্থায়ী কোন পরিকল্পনার বাস্তবায়ন দেখা যায় না পরিকল্পনায় তাই প্রশাসনের প্রশাসকের ভাবনার উপর নির্ভও করতে হয় । তাই প্রশাসক পরিবর্তনের সাথে সাথেই পরিবর্তন হয় বিশ্ববিদ্যালয় এর পরিকল্পনার ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের ৫ম তলায় পরিকল্পনা উন্নয়ন ও ওয়ার্কাস দপ্তরটি তার দাপ্তরিক কার্যক্রম পরিচালনা করে । সেই দপ্তরে প্রবেশের পথেই দেখা যাবে কাগজপত্রের স্তুপ । যা পরিকল্পিত ভাবে রাখা হয়নি । যার জন্য সেই ফ্লোরকে দেখে কোন দপ্তর মনে হয় না, মনে হয় কোন এক গোদাম ঘর। বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী জানান,যাদের কাছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনার দায়ভার তারা নিজেরাই তাদের দপ্তরটাকে পরিকল্পিত ভাবে গোছাতে ব্যর্থ তাদের কাছে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনা সুন্দর ভাবে কিভাবে প্রত্যাশা করা যায়! তারা নিজেরাই তো অপরিকল্পিত ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের দাবি,এই দপ্তরের ঘাটতি, অসংগতির জায়গা চিহ্নিত করে উপাচার্যেও হাত দিয়ে প্রকৃত ভাবে স্বয়ং-সম্পূর্ন পরিকল্পিত দপ্তর হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে বিশ্ববিদ্যালয় উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাক।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন