মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জ শহরের কাচারী সংলগ্ন হাইস্কুল মার্কেটের টয়লেট ও টয়লেট গলিতে মিলছে ডজনে ডজনে ফেন্সিডিলের বোতল। তবে কে বা কারা এসব বোতল ফেলে রেখে যাচ্ছে তা সর্ম্পকে বলতে পারছে না মার্কেট কতৃপক্ষ। এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কেটের একাধিক দোকানদার অভিযোগ করে বলেন, বিভিন্ন সময় স্থানীয় মাদক সেবীরা মার্কেটের ভিতরে ফেন্সিডিল পান করে বোতল গুলো এখানেই ফেলে রেখে যায়, চোখ দিয়ে দেখলেও নানা কারণে প্রতিবাদ করা সম্ভব হচ্ছে না।
সরজমিনে ঐ মার্কেটে গিয়ে দেখা যায়, মার্কেটের একটি গলির শেষে টয়লেট রয়েছে, টয়লেটের সামনে লোহার গেটের পর ২০-২৫ফুট ফাকা জায়গা , এই ফাকা জায়গায় পড়ে আছে অজ¯্র ফেন্সিডিলের বোতল ও সিগারেটের ফিল্টার। জায়গাটি দেখলে উপলব্দি হয় বহুদিন যাবতই মাদক সেবীরা নিশ্চিন্তে মাদক সেবন করে আসছে এখানে।
এব্যপারে এক দোকানদার জানায়, টয়লেটের গলিটির দোকান গুলো বন্ধ থাকায় বেশিরভাগ সময়ই গলিটি লোকশূন্য থাকে। লোকশূন্য থাকার সুযোগেই বর্তমানে মাদক সেবীদের মাদক সেবনের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে এটি।
আরেক দোকানদার জানান, মাদক সেবীদের উৎপাতে মার্কেটের শান্তিপূর্ন অবস্থান নষ্ট হচ্ছে, মাদক সেবীদের কারনেই কিছুদিন আগে টয়লেটের সামনে লোহার গেট তৈরি করা হয়েছে, তবে কমছে না উৎপাত্ত। দিন ও রাতে মার্কেট খোলা থাকা অবস্থায় মাদক সেবীরা এসে সিগারেট, ফেন্সিডিল, গাজা সেবন করে।
সরজমিনে গিয়ে দেখাযায় মার্কেটে একাদিক বইয়ের লাইব্রেরী, ১টি মোবাইল অপারেটিং সার্ভিস সেন্টার, একাধিক কম্পিউটার সার্ভিসিংয়ের দোকান বিদ্যমান রয়েছে। সপ্তাহের ৬দিন সকাল ৯ থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মার্কেট কমপ্লেক্সটি খোলা থাকে।
বিষয়টি জানালে মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম পিপিএম জানান, বিষয়টি জানলাম, খোজ নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন