কাজী জামালউদ্দিন আহমেদ আর নেই। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে তিনি মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। তাঁর ছেলে কাজী এম আহমেদ জানিয়েছেন, আজ শনিবার জোহর নামাজের পর গুলশান কেন্দ্রীয় মসজিদে কাজী জামালউদ্দিন আহমেদের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তাঁর মরদেহ মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে ধামারনে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।

ছোট পর্দায় বিজ্ঞাপনচিত্রে অভিনয় করে দারুণ জনপ্রিয় হয়েছিলেন কাজী জামালউদ্দিন আহমেদ। পেয়েছিলেন মেরিল–প্রথম আলো পুরস্কার। তিনি প্রথম বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেছিলেন জনপ্রিয় নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সঙ্গে। আজ সকালে কাজী জামালউদ্দিন আহমেদের মৃত্যুসংবাদে গভীর শোক প্রকাশ করেন মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। তিনি বলেন, ‘অনেক বছর আগে আমি রাস্তায় যায়যায়দিন পত্রিকার বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিং করছিলাম। দেখি, একজন বৃদ্ধ লোক বারবার আমার ক্যামেরার সামনে এসে উঁকি দিচ্ছেন। শুরুতে বিরক্ত হলেও পরে তাঁকে খুব ইন্টারেস্টিং মনে হয়। এই বিজ্ঞাপনচিত্রে তাঁকে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। আমরা কিন্তু কাজী জামালউদ্দিন আহমেদকে নিয়েই বিজ্ঞাপনচিত্র তৈরি করেছিলাম।’

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী আরও বলেন, ‘এরপর কাজী জামালউদ্দিন আহমেদকে নিয়ে আরেকটি বিজ্ঞাপনচিত্র তৈরি করেছি। আশিয়ান সিটির ওই বিজ্ঞাপনচিত্রের ট্যাগ লাইন ছিল “নাকে তেল দিয়ে ঘুমান”। এই বিজ্ঞাপনচিত্রটি তাঁকে খুব জনপ্রিয় করে।’

মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সঙ্গে যখন পরিচয় হয়, তখন কাজী জামালউদ্দিন আহমেদ অবসরজীবন যাপন করছেন। কিন্তু শুটিং ইউনিটের ছোটদের সঙ্গে তিনি বন্ধুর মতো মিশে যেতেন। ছোটরাও তাঁকে আপন করে নেয়। সেটা ছিল তাঁর জীবনের নতুন ইনিংস। তাঁর ব্যস্ততা বেড়ে যায়, বিজ্ঞাপনচিত্রের পাশাপাশি তিনি নাটকেও অভিনয় করেন।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন