নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত এবারের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে যুব টাইগাররা একদমই ভালো করতে পারেনি। গতবার তৃতীয় হওয়া বাংলাদেশ এবার শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখিয়ে দেশ ছাড়লেও শেষ পর্যন্ত পঞ্চম স্থানেও থাকতে পারেনি। তবে দল খারাপ করলেও আলাদা করে নজর কেড়েছেন অলরাউন্ডার আফিফ হোসেন।

নিউজিল্যান্ডের বিরুপ কন্ডিশনেও ব্যাটে-বলে নিজের জাত চিনিয়েছেন আফিফ। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের হয়ে চারটি ফিফটি করেছেন, উইকেট নিয়েছেন ৮টি। এমন পারফরম্যান্সের স্বীকৃতিস্বরুপ এবার এ অলরাউন্ডারকে ‘উদীয়মান তারকা’ হিসেবে বেছে নিয়েছে আইসিসি।

আইসিসি নিজেদের ওয়েবসাইটে আফিফের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছে এভাবে, ‘কঠিন সময়ে পারফর্ম করার সামর্থ্য দেখিয়েছে আফিফ। পুরো প্রতিযোগিতায় সে মোট চারটি ফিফটি করেছে, এগুলোর মধ্যে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৭১ রানের ইনিংসটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই ১৫ রানে ৩ উইকেট নিয়েছে সে। যার ফলে ইংলিশরা অল্পতেই সেদিন গুটিয়ে গিয়েছিল।’

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) অভিষেকে রাজশাহী কিংসের হয়ে ৫ উইকেট নেয়ার নজির আছে ১৮ বছরের আফিফের। বিশ্বকাপ আসরেও একই সেই নজির গড়েছেন।
নামিবিয়ার বিপক্ষে নরম শুরুর পর কানাডার বিপক্ষে নিজের অলরাউন্ডার পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেছেন। ম্যাচে ব্যাট হাতে ৫০ রান করার পর বল হাতে নেন ৪৩ রানে ৫ উইকেট।
কানাডা ম্যাচের পর আরও তিনটি হাফসেঞ্চুরি করেন যুব দলের এ অলরাউন্ডার। সেইসঙ্গে আরও তিনটি উইকেট নেন পরের ম্যাচগুলোতে।

আফিফ নজর কেড়েছেন ক্রিকেটের সংবাদদাতা ওয়েবসাইট ইএসপিএন-ক্রিকইনফোরও। তাদের বিচারে যুব বিশ্বকাপের সেরা একাদশে স্থান পেয়েছেন তিনি।
আফিফের সঙ্গে আইসিসির উদীয়মান ক্রিকেটারের তালিকায় রয়েছেন ভারতের শুভমন গিল ও কমলেশ নাগারকোটি, অস্ট্রেলিয়ার জেসন সাংহা ও জ্যাক এডওয়ার্ড, পাকিস্তানের শাহিন শাহ আফ্রিদি, আফগানিস্তানের মুজিব জাদরান, সাউথ আফ্রিকা রেনার্ড ভ্যান টোনডার, ইংল্যান্ডের হ্যারি ব্রুক, নিউজিল্যান্ডের রাচিন রবীন্দ্র এবং ফিন অ্যালেন।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন