স্বাভাবিক নিয়মে অধিনায়কের অনুপস্থিতিতে দলের সহ-অধিনায়কের ওপরই বর্তায় অধিনায়কের দায়িত্ব। সে হিসেবে ৩১ জানুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কাঁধেইপড়েছে নেতৃত্বের ভার। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

প্রশ্নটা উঠছে সাকিব আল হাসানের ইনজুরির কারণে। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার ইনিংসের ৪২তম ওভারে হাতে চোট পান সাকিব। এ কারণেই মূলত দশম টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে মাহমুদউল্লাহর নাম উচ্চারিত হচ্ছে। ঘরোয়া পর্যায়ে সীমিত বা দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেটে নিয়মিতই অধিনায়কত্ব করেন তিনি। ফলে অধিনায়কের দায়িত্ব সামলানো তার জন্য খুব একটা কঠিন হওয়ার কথা নয়।

প্রসঙ্গত, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনালের ৪২তম ওভারের প্রথম বলে ওই চোট পান সাকিব। মুস্তাফিজুর রহমানের বলে দিনেশ চান্দিমালের শটে বল থামাতে গিয়ে তিনি আহত হন। পরে তিনি মাঠ ছাড়েন।

বিসিবি সূত্র জানায়, সাকিব চোট পেয়েছেন বাঁ হাতের কনিষ্ঠায়। মাঠের বাইরে আসার পর সেলাই পড়েছে হাতে। পরে স্ক্যান করতে পাঠানো হয় হাসপাতালে। স্ক্যান রিপোর্ট থেকে জানা যায়, কোনো চিড় ধরা পড়েনি।

এদিকে বিসিবি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, অন্তত এক সপ্তাহ লাগবে সাকিবের হাত সেরে উঠতে। আনুষ্ঠানিকভাবে এক সপ্তাহের কথা বলা হলেও সাকিবের হাত ঠিক হতে লেগে যেতে পারে দুই সপ্তাহও। সেক্ষেত্রে দ্বিতীয় টেস্টেও পাওয়া যাবে না বাংলাদশের সেরা অলরাউন্ডারকে।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন