মাহাবুব ইসলাম উজ্জ্বল, মাগুরা প্রতিনিধি ॥

মাগুরা জেলার মহম্মদপুরের নাওভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের গাছ কাটে গোপনে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।
জানা গেছে, কাউকে কিছু না জানিয়ে সরকারি স্কুলের গাছ বিদ্যালয়ের পাশে অবস্থিত একটি ইট ভাটায় বিক্রি করে দিয়েছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়রা বিভিন্ন মহলে এ সংবাদ প্রচার করেন। সংবাদটি উপজেলা প্রশাসন ও প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের দৃষ্টি গোচর হয়। পরে পুলিশ ও শিক্ষা অফিসার ওই ইট ভাটায় সরেজমিনে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন।

মহম্মদপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ মোশাররফ হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা গাছ বিক্রয়ের সকল প্রমানই পেয়েছি। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এই ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলামের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টাকালে তার ফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এ ঘটনায় মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ তরীকুল ইসলাম জানান, শিক্ষা অফিসারের মৌখিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমার টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন