নির্ধারিত সময়েই দেশে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, সব দল শান্তিপূর্ণভাবে এ নির্বাচনে অংশ নেবে। এতে বিএনপিও অংশগ্রহণ করবে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন কমিশন স্বাধীনভাবে নির্বাচন পরিচালনা করবে। এতে সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ থাকবে না। সরকার নির্বাচন কমিশনকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেবে। জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়ে নিশ্চয়তা দিয়েছেন।

শনিবার রাজধানীর এফডিসি মিলনায়তনে এক বিতর্ক প্রতিযোগিতার পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

‘ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’ ও বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলা যৌথভাবে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। ‘নির্বাচন কমিশনের প্রতি জনগণের আস্থা বেড়েছে’ শীর্ষক এ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষাথীরা অংশগ্রহণ করেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন দেশের সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে। সে সময় বিএনপি নেত্রীর দেয়া ৭২ ঘণ্টার আলটিমেটামের মধ্যে তিনি বিএনপি নেত্রীকে ফোন করে আলোচনায় অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয় ছেড়ে দেয়ার প্রস্তাবও দেন। বিএনপি নেত্রীর দেয়া শর্ত মেনে নেয়ার পরও তারা নির্বাচনে অংশ না নিয়ে ধ্বংসাত্মক কাজে লিপ্ত হয়।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান এবং ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান এম এ সবুর।

প্রতিযোগিতায় ৩২টি সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন ও রানারআপ হয় ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এবং বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি (বিইউএফটি)।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন