নিজস্ব প্রতিনিধি : মজিদ মিয়ার সব কিছু কেড়ে নেয় উত্তাল পদ্মা। চাষের জমি, ঘরবাড়ি সব হারিয়ে নিষ হয়ে যায় সে । ভূমিহীন হয়ে পরিবার নিয়ে চলে আসে শহরে। এদিকে মাকে হারিয়ে ছেলে সোহাগ প্রায় পাগল। নদী ভাঙ্গা মানুষের ভূমিহীন পরিচয় মুছে দিয়ে তাদের মুখে হাসি ফুঁটানোর গল্প নিয়ে তৈরি হয় নাটক ‘কপাল’।

শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিভিশনে কাব্য বিলাস নাট্য গোষ্ঠীর কাপাল নাটকের শুটিং শেষ হয়। অচিরেই বিটিভিতে প্রচার হবে নাটকটি। দেশের অন্যতম শিশু-কিশোর নাট্য দল কাব্য বিলাসের অভিনয় শিল্পীদের দক্ষতায় নাটকটি পেয়েছে বাস্তাবরূপ। নাট্যকার ও নির্দেশক রাহুল রাজ জানান, অনেক ঘটনাবহুল এ নাটকটি আমার জীবনে বিশেষ ভাবে স্মরনীয় হয়ে থাকবে।  এবারের এই কপাল নাটকের মধ্যে জড়িয়ে আছে আমার বিশেষ কিছু স্মৃতী। সেই স্মৃতীর ভান্ডারকে সমৃদ্ধ করতে, বরাবরের মত ভিন্ন গল্পে তৈরি করেছি এ নাটকটি। নদী ভাঙ্গা মানুষের জীবনের প্রতিচ্ছবি তুলে ধরা চেষ্টা করা হয়েয়ে এ নাটকে। দলের সদস্যরা প্রতিটি চরিত্র নিজেদের মধ্যে ধারণ করতে সক্ষম হয়েছে। অতীতের মত এবারের নাটকটিও দর্শক নন্দিত হবে বলে আমার বিশ্বাস।

নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করে, শ্রাবণ সুমন, অমিও রহমান, প্রমিয়া, রাকিবুল ইসলাম, রবিউল, ইতি, মামুন, অঙ্গুর, কামরুজ্জামন, রায়হান, রাবিব সহ আরো অনেকে।

উল্লেখ্য ‘প্রতিভার প্রতিক্ষায় নতুনের জয়গান’ এই শ্লোগানে কাব্য বিলাস নাট্য গোষ্ঠী বিগত ১১ বছর যাবৎ নিয়মিত অপ সাংস্কৃতিক রোধে দেশ ও আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে সমাজ সচেতন ও ভিন্ন ধারা নাটক মঞ্চায়ন করে যাচ্ছে।

 

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন