জাফলংয়ে ইসিএ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা
নীতিমালা অনুসরণ করে পাথর উত্তোলনের ক্ষেত্রে
প্রশাসনের সর্বাত্মক সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে
……সৈয়দ আমিনুর রহমান

শাহআলম, গোয়াইনঘাট থেকে
সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সৈয়দ আমিনুর রহমান বলেছেন কোয়ারি থেকে কোন যান্ত্রিক পদ্ধতিতে পাথর উত্তোলন করা যাবে না। প্রশাসনের নির্দেশনা অমান্য করে কেউ পাথর উত্তোলন করতে গিয়ে কোন শ্রমিক হতাহতের ঘটনা ঘটলে এর দায়ভার শ্রমিক ও কোয়ারি মালিকদের বহন করতে হবে। পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি আরও বলেন নীতিমালা অনুসরণ করে পাথর উত্তোলনের ক্ষেত্রে প্রশাসনের সর্বাত্মক সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে।
তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে জাফলং আমির মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জাফলংয়ে প্রতিবেশগত সংকটাপন্ন এলাকার (ইসিএ) উপজেলা ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা ও জাফলং পাথর কোয়ারি সংশ্লিষ্টদের সাথে মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

গোয়াইনঘাটের ইউএনও বিশ্বজিত কুমার পাল’র সভাপতিত্বে ও উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা রেজাউল ইসলাম’র পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেটের উপ-পরিচালক মো. আলতাফ হোসেন, গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাহ আলম স্বপন, গোয়াইনঘাটের সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমন চন্দ্র দাস, সিলেটের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার লুৎফর রহমান, পূর্ব জাফলং ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান লেবু,

ওসি গোয়াইনঘাট মো. দেলওয়ার হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সামসুল আলম, গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি মিনহাজ উদ্দিন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মিনহাজুর রহমান, জাফলং বল্লাঘাট পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম খান, সম্পাদক দেলওয়ার হোসেন, জাফলং স্টোন ক্রাশার মিল মালিক সমিতির সভাপতি বাবলু বখত প্রমুখ। সভায় জরুরী জ্ঞাতব্য হিসেবে সনাতন পদ্ধতিতে পাথর উত্তোলনের ক্ষেত্রে ১১টি শর্তের বিষয়ে উপস্থিত পাথর ব্যবসায়ী, মিল মালিক, শ্রমিক ও জনসাধারণের মাঝে উপস্থাপন করা হয়।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন