ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘বিশ্ব উদ্যোক্তা সপ্তাহ ২০১৭’ শেষ হয়েছে

সেরা ব্যবসায়িক ধারনা উপস্থাপনকারীদের পুরস্কৃত করার মধ্য দিয়ে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে এন্ট্রাপ্রেনিউরশীপ ডিপার্টমেন্টের উদ্যোগে শুরু হওয়া পাঁচ দিনব্যাপী বিশ্ব উদ্যোক্তা সপ্তাহ ২০১৭ আজ (১৯ নভেম্বর) শেষ হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে আয়োজিত সমাপনী ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিল্পমন্ত্রী জনাব আমির হোসেন আমু , এমপি। বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোঃ সবুর খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম ইসলাম, বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারন সম্পাদক জনাব মুনির হাসান, গ্লোবাল এন্ট্রাপ্রেনারশিপ নেটওয়ার্কের কান্ট্রি হোস্ট সোহায়েল চৌধুরী, এন্ট্রাপ্রেনারশিপ বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ শিবলী শাহরিয়ার, ক্যারিয়ার ডেভেলাপমেন্ট সেন্টারের পরিচালক আবু তাহের খান প্রমুখ।

এ মেলার সহযোগী হিসেবে রয়েছে ক্যারিয়ার ডেভেলাপমেন্ট সেন্টার এবং স্ট্র্যাটিজিক পার্টনার বাংলাদেশ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল লিঃ। ব্যবসা প্রস্তাবনা প্রতিযোগিতায় সারা দেশ থেকে অংশ নেয়া ৬৯ টি প্রস্তাবনার মধ্য থেকে ১২ টি সেরা প্রস্তাবনাকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কৃত করা হয়।

পাঁচ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালায় ছিল বাংলাদেশে উদ্যোক্তা উন্নয়ন শীর্ষক আলোচনা সভা, দেশের প্রতিভাবান তরুণদের মাঝে ব্যবসা প্রস্তাবনা প্রতিযোগিতা, স্টার্ট আপ ফেয়ার, ডিজিটাল মার্কেটিং, বিপণণ কৌশল ও ধারনা বিষয়ক কর্মশালা, ভেঞ্চার ক্যাপিটাল পলিসি এবং প্রসিডিউর বিষয়ক সেমিনার, মহিলা উদ্যোক্তা উন্নয়ন বিষক আলোচনা, বুট ক্যাম্প, উদ্যোক্তা সম্মেলনসহ নানা আয়োজন।

সমাপনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন বলেন, বাংলাদেশ সরকার উদ্যোক্তা উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এবছর শুধু বিটাক থেকেই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ছয় হাজার উদ্যোক্তা তৈরি করা হয়েছে এবং তাৎক্ষণিক কর্মসংষ্থানের ব্যভস্থা করা হয়েছে। । এছাড়া বিসিক, বিটাক ও এসএমই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমেও হাজার হাজার উদ্যোক্তা তৈরি করা হচ্ছে বলে জানান শিল্প মন্ত্রী। তিনি বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে হলে প্রচুর শিল্পোন্নয়ন দরকার। এজন্য বিসিক সারা দেশে ১৭৭টি এলাকাভিত্তিক শিল্পক্লাস্টার তৈরি করছে। এখন থেকে ক্লাস্টারভিত্তিক শিল্পাঞ্চল তৈরি করা হবে বলে জানান আমির হোসেন আমু।তিনি আরো বলেন, উদ্যোক্তা উন্নয়নে জামানত ছাড়া গত এক বছরে ৯০ কোটি টাকা ঋণ প্রদান করা হয়েছে।

বিশ্ব উদ্যোক্তা সপ্তাহ-২০১৭ উদযাপনের প্রশংসা করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি একটি যুগপোযোগী আয়োজন করেছে। সরকারের শিল্প অগ্রযাত্রায় এটি নিঃসন্দেহে একটি বড় অবদান। এসময় শিল্পমন্ত্রী অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়কেও উদ্যোক্তা উন্নয়নে ইউনিভার্সিটি -ইন্ডাস্ট্রি রিংকেজ সম্প্রসারনের কর্মসূচি গ্রহণ করার আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানের সভাপতি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ সবুর খান বলেন, উদ্যোক্তা উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের শিল্প মন্ত্রণালয়, বিসিক, বিটাক, এসএমই ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান প্রশংসনীয় কাজ করছে। তবে তাদের কার্যক্রমকে আরও আধুনিক ও প্রযুক্তিবান্ধব করা প্রয়োজন বলে মনে করেন মোঃ সবুর খান। তিনি বলেন, তরুণ উদ্যোক্তাদের কাছে বিসিকের হালনাগাদ কোনো তথ্য নেই। কোন এলাকার বিসিক কী ধরনের উদ্যোগে সহায়তা করে তারও কোনো তথ্য নেই। যদি বিসিকের এলাকাভিত্তিক ক্লাস্টার তৈরি করা থাকত তবে উদ্যোক্তাদের জন্য সুবিধা হতো। এসময় মোঃ সবুর খান বলেন, মন্ত্রণালয় চাইলে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি স্বেচ্ছাসেবার ভিত্তিতে বিসিকের ওয়েবসাইট হালনাগাদ করে দেবে। এছাড়া ক্লাস্টারভিত্তিক বইও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি তৈরি করে দেবে বলে জানান তিনি।

স/মা

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন