আগৈলঝাড়ায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায়
কলেজ ছাত্রীকে কুপিয়ে আহত করেছে বখাটে

স্বপন দাস, আগৈলঝাড়া
আগৈলঝাড়ায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় পুলিশ ফাঁড়ির ৫০ গজের মধ্যে এক ছাত্রীকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে বখাটে যুবক। স্থানীয়রা মুমূর্ষ অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এঘটনায় ওই ছাত্রীর মা রবিবার সকালে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, আগৈলঝাড়া উপজেলার রতœপুর গ্রামের মৃত মোস্তফা সরদারের মেয়ে ও বরিশাল বিএম কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী শান্তা আক্তার (১৮) শনিবার বিকেলে বিএম কলেজে পরীক্ষা শেষে তার দুই সহপাঠী টুম্পা ও পাপিয়াকে নিয়ে বাসে ধামুরা স্টেশনে নেমে ভ্যানযোগে নিজ বাড়ি আগৈলঝাড়া উপজেলার রতœপুরে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হলে পথিমধ্যে ধামুরা পুলিশ ফাড়ির ৫০ গজ দূরে ওৎপেতে থাকা বখাটে আলাল সরদার (২৫) শান্তাকে ধারালো ক্ষুর দিয়ে কপাল থেকে গলা পর্যন্ত পুচিয়ে পালিয়ে যায়। বখাটে আলাল শোলক ইউনিয়নের কাংশি গ্রামের ফজলুল হক সরদারের ছেলে।

ওই রাতেই গুরুতর আহত শান্তাকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালের সার্জারী বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে। আহত শান্তাতে দেখতে রাতেই বরিশাল পুলিশ সুপার মোঃ সাইফুল ইসলাম, বিপিএম শেবাচিম হাসপাতালে যান। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক উজিরপুর মডেল থানার এসআই জসিম উদ্দিন হাওলাদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। আহত শান্তার মা নিলুফা বেগম জানান, শান্তা ধামুরা কলেজে পড়াশুনার সময় থেকেই বখাটে আলাল তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে প্রত্যাখ্যান হয়ে আসছিলো। উজিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় আহত ছাত্রীর মা রবিবার সকালে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। বখাটে আলাল সরদারকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান চলছে।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন