পাইকগাছায় দাতা সংস্থার সহায়তা দেওয়ার নামে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥ পাইকগাছায় বিদেশী দাতা ও দাতা সংস্থার সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্র“তি দিয়ে এলাকার নিরিহ মানুষের কাছ থেকে আবেদন সংগ্রহ করা হচ্ছে। উপজেলার লতা ইউনিয়নের কাঠামারী এলাকার কুমারেশ মন্ডল নামের এক ব্যক্তি বিভিন্ন সহায়তা প্রদানের নামে এলাকার ২ শতাধিক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে আবেদন নিয়েছেন। এদিকে অভিযোগ উঠেছে, আবেদন খরচ বাবদ আবেদনকারীদের নিকট থেকে বিভিন্ন পরিমানের অর্থ আদায় করছেন বলে অনেকেই অভিযোগ করেছেন। এমনকি সহায়তা পাওয়া নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকেই। সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কাঠামারী বাজার সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে একটি অফিসও চালু করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ৭ জন কর্মী নিয়োগও দেওয়া হয়েছে। সহায়তা প্রদান কার্যক্রমের স্থানীয় প্রধান কুমারেশ মন্ডল জানান, খাইজার খান নামে আমেরিকার এক দাতা এলাকার মানুষের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করবেন।

প্রাপ্ত অর্থ, শিক্ষা উপবৃত্তি হিসাবে ইউনিয়নের ১৫টি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪৯৫ শিক্ষার্থীকে প্রদান করা হবে। এছাড়া ওয়ার্ড উপবৃত্তি হিসাবে ৯টি ওয়ার্ডের ৯০ জন মেধাবী শিক্ষার্থী, অসহায় পরিবার, ৯০ জন গরীব অসহায় পরিবার, ৯০টি সুপেয় পানির ট্যাংক, ২টি মসজিদ ও মন্দির, এলাকার রাস্তা সংস্কার ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মধ্যে ব্যবসায়ীক সহায়তা হিসাবে দাতার নিকট থেকে প্রাপ্ত অর্থ প্রদান করা হবে। তবে আবেদন খরচ বাবদ কোন অর্থ গ্রহণ করা হচ্ছে না বলে কুমারেশ মন্ডল জানিয়েছেন। তিনি বলেন আগামী ৪ নভেম্বর সহায়তার প্রথম ধাপের অর্থ প্রদান করা হবে। এ ক্ষেত্রে সরেজমিন গেলে অনেকেই অভিযোগ করেন, পানির ট্যাংক ও ব্যবসায়ীক সহায়তা পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রত্যেক আবেদনকারীর কাছ থেকে আবেদন খরচ বাবদ ১০০ টাকা করে নেওয়া হচ্ছে।

এমনকি কুমারেশ মন্ডল এলাকায় কখনো সাংবাদিক, কখনো জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত সাংস্কৃতিক কর্মী সহ নানা পরিচয় দিয়ে থাকেন। এ জন্য ভবিষ্যতে এ ধরণের সহায়তা পাওয়া নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন অধিকাংশ এলাকাবাসী। বিষয়টি খতিয়ে দেখে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী। বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফকরুল হাসান জানান।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন