মোঃমোছাদ্দেক বিল্লাহ(বিষেশ প্রতিবেদক)

ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া থানার এস আই সালাম ভাই এর কথা বলছি। ঐ যে কিনা বাংলা কলকাতা ছবির সৎ পুলিশ অফিসারের মত বদলে দিতে চেয়েছেন কাঠালিয়া উপজেলা কে যেমন অনেকটা করছেন।আগের দিনের বাংলা কলকাতা ছবিতে প্রায়ই দেখা যেতো,”অপরাধে ঘেরা একটি শহরে আসে সৎ একজন পুলিশ অফিসার আসেন যিনি পুরো শহরকে সৎ রাখতে চান,মানুষকে নিরাপত্তা দিতে চান,জনগনের সাথে বন্ধুর মত বিনয়ি নম্র ব্যবহার করেন।”আদতে কি এইরকম হয়?হ্যা অবশ্যই এইরকম বাস্তবেই হয় তার প্রমান কাঠালিয়া থানায় ।অনেকেই জানে আর অনেকেই হয়তো জানে না।সত্যিই এরকম একজন পুলিশ অফিসার ছিলেন কাঠালিয়া থানায় উনার নাম মো: আব্দুস সালাম ।২০১১ সালের শেষের দিকে কাঠালিয়া থানায় জয়েন্ট করেন। শুরু থেকেই উনি আধুনিকতা এবং দক্ষতার সাথে তার মেধার বিকাশ ঘটিয়ে অপরাধ কমাতে থাকেন। আমার চোখে উনিই প্রথম কোন পুলিশ অফিসার যিনি কিনা বাংলাদেশে এতো আধুনিকতা , টেকনোলজি,সততা এবং দক্ষতা দিয়ে অপরাধ দমাতে পেরেছেন।ঐ এলাকার যে কোন মানুষ উনাকে বন্ধু ভাবতে পারে।কোন সাধারন মানুষ থানায় গিয়ে পুলিশের সাথে গল্প করতে করতে চা খায় এটা কি কল্পনা করতে পেরেছেন কখনো? কিন্তু উত্তরে বেশিরভাগ সাধারন মানুষ বলে ” সালাম ভাই এর সাথে থানায় বসে চা খেয়েছেন।উনি সবাইকে আপন ভেবে চলেন।বাংলা ছবির পরের দৃশ্যগুলোর কথা মনে আছে? সেই সৎ পুলিশ অফিসারটি যখন অপরাধ কমিয়ে আনে ঠিক তখনই ক্ষমতাবান কিছু উচু শ্রেণীর মানুষ সেই সৎ পুলিশ অফিসারটিকে বদলি দেওয়ার জন্য উঠে পরে লাগে।বাস্তবে এমনই হয়েছে।একি সৎ পুলিশ অফিসারের পুরস্কার? যদিও উনি বলছেন না কিছু।

কাঠালিয়া থানায় বিভিন্ন বাজারের প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি করা হত কিন্তু উনার নেতৃত্ব তা দমন হয়েছে।বিগত কয়েক দিন আগে কাঠালিয়া গভীর রাতে কয় একজন জন অস্ত্রধারী ডাকাতকে গ্রেফতার করে,উনার সাহসিকতায় ও দক্ষতায়।উনার বন্ধু সুলভ ব্যবহারে কাঠালিয়ার মানুষ মামলা মুকদ্দমা থেকে মুক্ত হয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারছে। তবে বাংলাদেশে এরকম সৎ পুলিশ অফিসারের এরকম জায়গায় থাকা জরুরি একথা সব মানুষই জানে। জনগনের বন্ধু হবার পুরস্কার পেলেন উনি।অনেক সাধারন মানুষ ধিক্ষার জানিয়েছেন তাদের যারা সালাম সাহেব কে বদলি করে দিয়েছে কাঠালিয়া থেকে রাজাপুরে ।সর্বশেষ একটি কথা হল “”যেতে নাহি দিব হায় তবু যেতে দিতে হয়,তবুও চলে যায়” তার পরও বলছি রাজাপুর থানা দেশের বাইরে না। যে জায়গায় থাকেন না কেন দেশপ্রেম সেখানেও দেখিয়ে যাবেন এই সৎ পুলিশ অফিসার মো: আব্দুস সালাম। তার পেশার পথটিকে আসলেই আলোকিত করে তুলবেন। তিনি নিজে সম্মানিত হবেন, তার পুলিশ বাহিনীকেও সম্মানিত করে তুলবেন এমনই প্রত্যাশা।

স/মা

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন