‘কষ্ট’

হোসেন মনির

কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট,কষ্ট কারে কয়?
দুনিয়ায় দজ্জালদের দাপটে,
দুঃস্থ-দূর্বলদের দুঃখ দশায়,
দেখবার দিল দেখা দায়!

ব্যথায়-ব্যথায় বুকে বক্ষব্যাধী,
বিচ্ছেদের বর্শায় বিদ্ধতার,
টানে-টানে টনটনে টোকায়,
ব্যথার বিরক্তিতে বিতৃষ্ণা,
যমের যাতনায় যেন,
কলিজায় কাঁমড়ায় কাঠঠোঁকড়ায়!
কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট,কষ্ট কারে কয়!

বুকের ব্যথা- বেদনায় বসি,
চুপে চুপে চোখের চাহনী চেয়ে,
আহ্,আহ্রে আহ্;
ওহ্,ওহ্রে ওহ্!

নিঃশ্বাস নিতে নড়েচড়ে নামি,
বাঁচার বড় বাসনারে,
মা’বুদ মারিসনারে-মারিসনা মোরে,
মা’বুদ-মা’বুদরে মাহ্……!
কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট!

স্বপ্নের সংসারে সন্তানদের সেরা সাজাতে,
বাকী বহু বাসনা-বিড়ম্ববনায়,
অর্থের অভাবে অকালে অপমৃত্যু,
কত-কত কবর কাজী-করিমদের!
বাবা বাবা বলে বাচ্চারা,
বাতাশের বাঁকে বাঁকে,
দৌড়ায় দাঁড়াতে দরজায়,
ভাসে ‘ভরসার’ ভাবনায়!
কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট!

কূটকাজের কর্তাদের কুৎসার কাহিণীতে,
কাঁদে কত কত করিমন কলঙ্কের করালে!
বিশাল বাংলায় বদমায়েশদের বানানো ব্যাবসায়,
সোনামণিদের সম্ভাবনার সূর্যদয়েই,
পথে পড়ে-পথে পঁচে পথেই পরাজয়!
কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট!

খাবারের খাজনায় খায় খতিবেরা,
কেহ কেহ কাঁধে কাঁথা কাঁমড়িয়ে,
দুঃখভরা দৃষ্টিতে দাঁড়িয়ে দেখে,
দুটি দানাও দেয়না দেখিয়েরা!
কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট,কষ্ট কারে কয়!

ভীষণ ভারাক্রান্ত ভাবনার ভারে,
অভাব-অভিযোগের অসহ্য অবস্থায়,
ছিনতাইয়ের ছত্রাকে ছড়াছড়ি!
বেশ্যাবৃত্তির বাধ্যবাধকতায় বাঁধে,
প্রতিবেশীর পাষন্ড পরিকল্পনার প্রয়াসে!
কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট!

মানুষের মনের মায়ার,
জিজ্ঞাসায় জং জড়িয়েছে জগতে!
অভাগা-অবলাদের অসংখ্য অতৃপ্তিতে,
নিরবে-নিভৃতে নিজস্ব নিয়তিতে,
ভবিষৎ ভাগ্যের ভালোর ভাবনায়,
বৈশাখী বাতাশের বিভীষিকার বর্ণে বুঝেছে,
সাধের সুখ ‘সমাধীর সংস্পর্শেই’!
কষ্ট,কষ্টরে কষ্ট,কষ্ট কারে কয়!

উৎসর্গঃ কষ্টে চাপাপরা নির্বাক মানুষের নামে

ম্যাকপারসন-সিংগাপুর,০৯/০৮/২০১১ইং

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন