অনলাইন ডেস্ক

পারস্য উপসাগরে প্রায় ২০টি নতুন ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাবে ইরান। দেশটির ইসলামি বিপ্লবী নিরাপত্তা বাহিনী আইআরজিসি সম্প্রতি এ ঘোষণা দিয়েছে।

আইআরজিসি’র নৌবাহিনীর কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল জানিয়েছেন, ‘মহানবী-৯’ নামের এই সামরিক মহড়া শুরু হয়েছে। স্পিডবোর্ড দিয়ে সাগরে মাইন অভিযান এবং চারটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার মধ্য দিয়ে ‘মহানবী-৯’ সামরিক মহড়া শুরু হয়। এই মহড়া চলাকালীন মোট ২০টি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হবে।

অন্যদিকে, আইআরজিসি’র সেকেন্ড ইন কমান্ড ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জানিয়েছেন, তার দেশের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রগুলো মধ্যপ্রাচ্যের যেকোনও লক্ষ্যে অত্যন্ত নিখুঁতভাবে আঘাত হানতে সক্ষম। তিনি জানান, তাদের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রগুলি হাজার হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে পারে।

তিনি আরও জানান, ইরানের হাতে দ্রুত গতিসম্পন্ন হাজার হাজার যুদ্ধজাহাজ রয়েছে যা শত্রুকে ব্যাপক ভাবে হামলা করতে সক্ষম। এছাড়াও ইরানের কাছে বিভিন্ন রকমের ড্রোন রয়েছে যা হাজার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে সক্ষম এবং সেগুলি বিভিন্ন তথ্যচিত্র সংগ্রহ করে সেগুলি সরাসরি বা পরোক্ষভাবে ভূ-কেন্দ্রে পাঠাতে পারে। এমনকি এই ড্রোনের মাধ্যমে যেকোনও দ্রুতগতির যানবাহন লক্ষ্য করে নিখুঁত ভাবে ক্ষেপনাস্ত্র হামলা করা সম্ভব।

উল্লেখ্য, বিগত কয়েকবছরে সামরিক বিভাগে ব্যপক উন্নতি করেছে ইরান। এছাড়াও বিভিন্ন ক্ষেত্রে স্বয়ংসম্পূর্ণতাও অর্জন করেছে এই দেশটি।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন

Power by

Download Free AZ | Free Wordpress Themes