সাঈদ ইবনে হানিফ : যশোরের বাঘারপাড়ায় জমি জায়গা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক সংবাদিক পরিবারের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এবিষয়ে ভুক্ত ভোগী ঔ সংবাদিক হামলা সাথে জড়িতদের বিরেুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। সূত্র জানায়, দৈনিক সত্যপাঠ প্রতিবেদক ও বাঘারপাড়া প্রেস ক্লাবের ক্রিড়া সম্পাদক উপজেলার বাসুয়াড়ী ইউনিয়নের ঘোষনগর গ্রামে অবস্থিত সংবাদিক সাঈদ ইবনে হানিফ ও তার পরিবারের সাথে প্রতিবেশী আব্দুল মোল্যা গং এর দীর্ঘ দিন যাবত জায়গা জামি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল যা মীমাংখা জন্য একাধিক বার ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যগণসহ স্থানিয় গণ্য মান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে জমির পরিমাপ কারা হলেও প্রতিপক্ষ আব্দুল মোল্যা গং বার বারই ঐসব সমাজ প্রতিদের সিদ্ধান্ত অমান্য করে দন্দ সংঘাতের পুনঃবৃত্তি ঘটাতে উদ্ধাত হয়। এক পর্যয়ে গত ২০/১২/২০১৬ তাং উক্ত সমাজ প্রতিদের মাধ্যমে আবারও ঐসকল জমি সার্ভেয়ার দ¦ারা পরিমাপ করে সীমানা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। সেই থেকে প্রতিপক্ষরা সাংবাদিক ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রকার কুট কৌশল, হয়রানী ও হেনাস্তা করতে থাকে। যার অংশ হিসাবে উক্ত সাংবাদিকের পৈত্রিক সূত্র পাওয়া ঘোষনগর মৌজার ৩৯৮ দাগের অংশ বিশেষ জোরপূর্বক দখল করার উদ্দেশ্য ৫টি মেহগুনী গাছ লাগায় যাতে সাংবাদিক সাঈদ ইবনে হানিফ এর ছোট ভাই ইলিয়াজ হোসেন (২৭) বাধা দিতে গেলে গতকাল সকাল ৭:৩০ মিনিটের দিকে আব্দুল মোল্যা (৬৫) ও তার পুত্র বাবর আলী (৪০) আক্তার আলী (৩৭) বিপ্লব হোসেন (৩০) আমানত মোল্যার পুত্র রবিউল ইসলাম (৩৮) সহ ১০/১২ জন মিলে আর্তকিত হামলা চালিয়ে লাঠিদিয়ে বেধরক মারপিট করতে থাকে। এসময় সাংবাদিকের মা বাধা দিতে গেলে তাকেও বেধম মারপিট করা হয়। এসময় স্থানীয় প্রেিবশীরা ছুটে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে বাঘারপাড়া উপজেল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এঘটনায় সাংবাদিক বাধি হয়ে উক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। এদিকে এই হামলার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন, বাঘারপাড়া প্রেস ক্লাব ও সাংবাদিক ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন