জাফর পাঠান

নাফ নদী যেন ফোরাত নদী- হালাকু মূর্তিমান
আকাশে শকুন- নিচে হায়েনা- বর্গীরা বর্তমান,
ভূমিতে ছাইভষ্ম- পুড়ছে গৃহ- মানুষ- খামার
দেহে দেহে গুলির ক্ষত- শুধুই লাশ বেশুমার।

চোখে বর্গীর লেলিহান শিখা- হত্যায় ধাবমান
হাতে ইসরাইলী অস্ত্র- খুঁজে শুধু মুসলমান,
শূয়রে শূয়রে কামড়া-কামড়ি- কাঁদে আরাকান
কাঁদে বিশ্ব বিবেক, রোহিঙ্গাদের স্বপ্ন খানখান।

এক শূয়র ডাকে পশ্চিম, আরেক শূয়র পূর্ব
আরাকানকে আয়ত্বে নিতে- রক্ত নেশার গর্ব,
মানুষ যেন- মানুষ নয়- ভাসমান খড়কুটো
শরণার্থী নৌকাও হত্যার অভিপ্সায় করে ফুঁটো।

পাশের ঘরে গণহত্যা, প্রতিবেশীর চোখে ঘুম
রোহিঙ্গাদের পুঁজি করে চলে স্বার্থ আদায়ে ধুম,
ফাঁকা বুলির ঝড় তুফানে- কাঁপেনা বুক খুনির
শরাব খেয়ে শান্তির, দ্বিগুণে নেশা জাগে চুন্নির।

গর্জে যদি উঠেনা শক্তি, মানবতা করতে রক্ষে
তবে সম্ভারে ধরুক অগ্নি- ধরুক মরণ যক্ষে,
মজলুমের রক্ত দানেই- গড়ে উঠে অধিকার
রোহিঙ্গাদের এই রক্ত, এনে দিবেই স্বাধিকার।

স/মা

print
Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন