মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের বাস্তব অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে কুতুপালং শরণার্থী শিবিরে পৌঁছেছেন তুরস্কের ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোয়ান। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা ২৫ মিনিটে তিনি কক্সবাজার থেকে গাড়িযোগে সরাসরি কুতুপালং পৌঁছান।

সেখানে ফার্স্ট লেডিকে বরণ করে নেন শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালাম, জেলা প্রশাসক আলী হোসেন, পুলিশ সুপার ড. ইকবাল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাঈন উদ্দিন, সহকারি পুুলিশ সুপার চাউলাউ মার্মা,অফিসার ইনচার্জ আবুল খায়ের।

এর আগে ভোরে ঢাকায় পৌঁছান তুরস্কের এই ফার্স্ট লেডি। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান। বর্তমানে এমিনি এরদোয়ানের সঙ্গেই রয়েছেন তিনি।

কক্সবাজারেরর উখিয়ার কুতুপালং, টেকনাফ  নয়াপাড়া, লেদা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে ঢাকায় ফিরে ফার্স্ট লেডি এমিনি এরদোয়ান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে, রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনের তীব্র নিন্দা জানিয়ে গত শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) বিবৃতি দেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। তিনি একে ‘গণহত্যা’ বলেও উল্লেখ করেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৩১ আগস্ট) বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে ফোন করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রোহিঙ্গাদের আশ্রয়ের ব্যাপারে বাংলাদেশকে সহায়তার অঙ্গীকার করেন। এছাড়া তিনি মায়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চিকেও হুঁশিয়ার করেছেন।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন

Power by

Download Free AZ | Free Wordpress Themes