দুই দিনের ব্যবধানে পাকিস্তানের দুই সিনিয়র ক্রিকেটার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গন থেকে মিসবাহ-উল-হক ও ইউনিস খান অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। এর পরেই পাকিস্তানের আরেক সাবেক ক্রিকেটার শহিদ আফ্রিদি মন্তব্য করলেন যে, তার দেশ সম্মানজনকভাবে ক্রিকেটারদের বিদায় দেয় না।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের পাকিস্তান সম্মানজনক বিদায় দেয় না বলে অভিযোগ করে পাকিস্তানের জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম জিও নিউজে আফ্রিদি বলেন, ‘অন্যান্য দেশের ক্রিকেটারদের যেভাবে বিদায় দেয়া হয়, পাকিস্তান সেভাবে নিজ খেলোয়াড়দের সম্মানজনক বিদায় দেয় না।’ এই ধারা পরিবর্তনের জন্য পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও জাতীয় দলের বর্তমান প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল-হককে অনুরোধও জানান আফ্রিদি।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নেন আফ্রিদি। এর আগে দু’বার বিদায় বলেও আবারো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরেন তিনি। তবে এবার নিশ্চিতভাবেই অবসরের ঘোষণা দেন তিনি। অবসরের ঘোষণা দেয়ার আগে পরিবার-পরিজন-বন্ধুদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেছিলেন আফ্রিদি। পরিবার-পরিজন-বন্ধুরা তাকে অবসর নিতে নিষেধ করেছিলেন জানিয়ে আফ্রিদি বলেন, ‘আমার পরিবার-পরিজন-বন্ধুরা অবসর নিতে নিষেধ করেছিলো আমাকে। তবে আমার মনে হয় আমি সঠিক সিদ্বান্তই নিয়েছি। ফিটনেস থাকা অবধি, ঘরোয়া ক্রিকেট লীগগুলোতে খেলে যাবো। আমার মনে হয় আগামী দু’বছর আমি ভালোভাবেই খেলে যেতে পারবো।’

সাবেক এ লেগ স্পিনার বলেন, ঘরোয়া ক্রিকেটের অবকাঠামো উন্নতিতে মিসবাহ-উল-হক, ইউনিস খান, শোয়েব আক্তার ও মোহাম্মদ ইউসুফকে কাজে লাগানোর বিষয়টি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবির) বিবেচনা করা উচিত।

তিনি বলেন, ‘নিজে সে ধরনের ব্যক্তি বলে আমি মনে করছি না। আমি হয়তো একদিনের জন্য কাজে আসতে পারি। হয়তো এক অথবা দুই দিন পর আমাকে সরিয়ে দেয়া হবে।’

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন