সাঈদ ইবনে হানিফ ঃ

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বাসুয়াড়ী ইউনিয়নের ঘোষনগর – ঘুনি বাজারে স্থাপিত ১১১৪নং বাংলালিং টাওয়ারে দেখা দিয়েছে বিকল অবস্থা। দীর্ঘ ৩মাস ধরে চলতে থাকা এই যান্ত্রীক গোলোযোগে এলাকার প্রায় ১০ হাজার গ্রাহক পড়েছেন মহা বিপাকে।

এই অবস্থা থেকে উত্তোরণের জন্য স্থানীয় মোবাইল সীম অপারেটর ও গ্রাহকগণ বাংলালিং কর্তৃপক্ষের সাথে একাধিকবার বৈঠক দিলেও কার্যকরী কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না যথাযথ কর্তৃপক্ষ।

ফলে গ্রাহকদের ভোগান্তি দিন দিন বাড়ছে। গ্রাহদের অভিযোগ এমনিতেই এই নেটওয়ার্কটি দুর্বল যেকারণে পড়তে হয় কল ড্রাফট সহ নানা সমস্যায়। তারপর এখন নতুন সমস্যা যুক্ত হয়েছে বিদ্যুৎ বিড়াম্বনায়। নেই জেনারেটরের ব্যবস্থা ফলে বিদ্যুৎ চলে গেলে নেটওয়ার্ক শূন্য হয়ে যায়।

মোবাইল সীম অপারেটর ব্যবসায়ী জুলফিকার আলী, আব্দুল কুদ্দুস বাবু, গ্রাহক ডাঃ রুহল আমিন বলেন এই অবস্থা আরো কিছুদিন চলতে থাকলে গ্রাহক পরিবর্তন হবে অনেকটা স্বাভাবিক নিয়মেই। তখন ক্ষতির সম্মুখিন হবে গ্রাহক সহ সাধারণ সীম ব্যবসায়ীরা।

এ বিষয়ে উক্ত কোম্পানীর জৈনিক কর্মকর্তা বলেন বাংলালিংকের নেটওয়ার্ক সমস্যা শুধু খুলনা বিভাগে সাময়িক এই যান্ত্রীক গোলযোগের বিষয়টি উর্দ্ধোতন কর্তৃপক্ষের নলেজে দেওয়া হয়েছে। যেহেতু এটি একটি বড় কোম্পানী তাই এই সমস্যার সমাধান করতে কিছুটা সময় লাগবে।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন