ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৩৬তম সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ভাইস চ্যান্সেলরের বাসভবনে ভাইস চ্যান্সেলর ও সিন্ডিকেট সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারীর সভাপতিত্বে এ সিন্ডিকেট সভা অনুষ্ঠিত হয়। গুরুত্বপূর্ণ এ সিন্ডিকেট সভায় বিভাগের ছাত্রীর সাথে যৌন কেলেংকারির কারণে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আসাদুজ্জামানকে চাকুরিচ্যূত করা হয়েছে এবং একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে ঘুষ লেনদেনের কথোপকথন প্রমাণিত হওয়ায় তার বিরুদ্ধে ৩টি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সিদ্ধান্তগুলো হচ্ছে(১) ৩ বছর তিনি কোন পদন্নতি পাবেন না, (২) ৩ বছর ইনক্রিমেন্ট স্থগিত থাকবে এবং (৩) ৫ বছর তিনি প্রশাসনিক কোন দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না। এছাড়া ও একাডেমিক কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩টি বিভাগের নাম পরিবর্তন করা হয়েছে। বিভাগগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ আইন ও শরীয়াহ্ অনুষদভূক্ত আইন ও মুসলিম বিধান বিভাগের পরিবর্তে ‘আইন বিভাগ’, আল-ফিকহ্ বিভাগের পরিবর্তে ‘আল-ফিকহ্ এন্ড লিগ্যাল স্টাডিজ বিভাগ’ এবং ফলিত বিজ্ঞান প্রযুক্তি অনুষদভূক্ত ফলিত পদার্থবিজ্ঞান, ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের পরিবর্তে ‘ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ’ (ট্রিপল ই) করা হয়েছে। এছাড়াও এ সিন্ডিকেট সভায় বেশকিছু গুরুত্ব সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

সিন্ডিকেট সভায় উপস্থিত ছিলেন সিন্ডিকেট সদস্য প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (বিশ্ববিদ্যালয়) আব্দুল্লাহ্-আল-হাসান চৌধুরী, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মোঃ মাতিনুর রহমান, ইবি বাংলা বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ড. আবুল আহসান চৌধুরী, কুষ্টিয়া সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর কাজী মনজুর কাদির এবং সচিব ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন