সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জ শহরের কাজির পয়েন্টে বর্ডারহাট থেকে পাচারকৃত ভারতীয় অবৈধ মালামাল সিভিল পোশাকে বিজিবি’র সদস্য পরিবহনকালে জনতার হাতে আটক হয়। আটকের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশ ও বিজিবির সংঘর্ষে এক বিজিবি’র সদস্য আহত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে শহরের কাজির পয়েন্টে। স্থানীয় একাধিক সুত্র ও পুলিশ জানায়,ডলুরা বর্ডারহাট থেকে পাচারকৃত অবৈধ মালামাল পরিবহনকালে বিজিবি’র সদস্যকে মালামালসহ আটক করা হয়। এ সময় সদর থানার এএসআই আব্দুল হক জনতার সহযোগিতায় আটক করলে পুলিশ ও বিজিবি’র সদস্যর মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় বিজিবি’র সিভিল ড্রেসে থাকা এক সদস্য আহত হয়। পরে বিজিবি’র অন্যান্য সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসলে মারাত্মক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এ সময় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাবিবুল্লাহ উপস্থিত হয়ে ঘটনা নিয়ন্ত্রনে আনেন এবং পরে বিজিবি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সহায়তায় অবৈধ মালামাল ২৮বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়ায় হয় এবং আটককৃত সদস্যকেও ছেড়ে দেয়া হয়। এ সময় বিজিবি’র সদস্যরা গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে রূঢ় আচরন করেন। এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাবিবুল্লাহ জানান,অবৈধ মালামাল আটক করার ক্ষমতা বিজিবি’র রয়েছে। তবে আটককৃত মালামালের কোন সিজার লিষ্ট করা হয় নি। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আটককৃত মালামালসহ বিজিবি’র সদস্যকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পরে পুলিশ সুপার মো: রবকতুল্লাহ খান বিস্তারিত জানাবেন। এ ব্যাপারে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন,বর্ডারহাট থেকে বিজিবি’র সদস্যরা ভারতীয় মালামাল আটক করে মাল রেখে দেয় এবং বহনকারীকে আটক না করে মাল গুলো গায়েব করে ফেলে। প্রতি মঙ্গলবারেই বিজিবি’র সদস্যরা এভাবে মালামাল আটক করে গায়েব করে ফেলে। বিজিবি’র সদস্যদের দ্বারা সীমান্ত এলাকার মানুষ অতিষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমান সিও আসার পর থেকেই এ ধরনের অপরাধ ঘটেই যাচ্ছে।
এ ব্যাপারে ২৮বিজিবি’র কমান্ডিং অফিসার ল্যা: কর্নেল নাছির উদ্দিন এর বক্তব্য নিতে চাইলে তিনি আটককৃত সদস্যের খবরটি পাঠিয়েছেন ভাল বলে মোবাইল কেটে দেন এবং কোন বক্তব্য দিতে চাননি।

স/এষ্

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন