খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

শিল্পমন্ত্রীর নির্দেশে ঝালকাঠি শহরে মালবাহী ট্রাক প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে জেলা পুলিশ। এতে ব্যবসায়ীদের মালমাল সরবরহে চরম ভোগান্তি সৃষ্টি হয়েছে। গত এক সপ্তাহ ধরে ঝালকাঠি পৌর শহরে মালবাহী ট্রাক চলাচল বন্ধে দিশেহারা হয়ে পড়েছে ব্যবসায়ী মহল। দক্ষিনঞ্চলের অন্যতম ব্যবসায়ীদের শহর ঝালকাঠিতে প্রতিদিন শতশত মালবাহী ট্রাক প্রবেশ করতো। হঠাৎ ঝালকাঠি পৌর শহরে মালবাহী ট্রাক চলাচল বন্ধে মালামাল সরবরাহে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ব্যবসায়ীরা।

এদিকে ঝালকাঠি শহরের প্রবেশ দ্বার পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন ঝালকাঠি বরিশাল মহাসড়কে কয়েকশ মালবাহী ট্রাক অবস্থান করে আছে দিনের পর দিন ।

ঝালকাঠির ব্যবসায়ী সমিতির নেতা ও ক্ষতিগ্রস্ত একাধিক ব্যবসায়ী জানায়, শহরে আরৎদারপট্টি, পেইজপট্টি, কাটপট্টি ও টিনপট্টি সহ বেশকয়েকটি এলাকায় শুধু ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার টন মালামাল আমদানি ও রপ্তানি হয়। এগুলো পরিবাহণের জন্য ব্যবহার হয় ট্রাক। ছোট যানবাহনে মালমাল নিতে হলে যেমন মালের ক্ষতি হয়, তেমন খরচও বেশি হয়। তাই দ্রুত ট্রাক শহরে প্রবেশ করেতে দেওয়ার জন্য প্রশাসন ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর হস্তোক্ষেপের দাবী জানান শহরের ব্যবসায়ীরা।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) এমএম মাহমুদ হাসান (পিপিএম-সেবা) বলেন, ঝালকাঠি পুলিশ সুপার মো. জোবায়েদুর রহমানের নির্দেশে ও পুলিশের বিশেষ অভিযানে শহরে ট্রাক প্রবেশ বন্ধ রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর নির্দেশ থাকায় মালবাহী ট্রাক শহরে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। মালবাহী ট্রাক শহরে ঢুকলে রাস্তা দেবে ক্ষতি হবে এবং শহরে ব্যাপক যানযট সৃষ্টি হয়। তাই শহরে পাশবতী এলাকায় ট্রাকের মাল নামিয়ে মিনি ট্রাক অথবা ছোট যানবাহনে মালমাল সরবরহের জন্য বলা হয়েছে।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন