হারুন-অর-রশীদ,ফরিদপুর প্রতিনিধি

আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল দুই শিক্ষার্থীর পড়াশোনার দায়িত্ব নিয়েছে কাঞ্চন মুন্সি ফাউন্ডেশন। তারা হচ্ছেন-ইয়াকুব আলী এবং আশিকুজ্জামান পারভেজ। তাদের দুজনের বাড়ি ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলায়।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর তোপখানা রোডে স্বাধীনতা হলে এক স্মরণসভায় ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান দোলন এ ঘোষণা দেন। প্রয়াত পুলিশ কর্মকর্তা শেখ সিরাজুল হক স্মরণে সভার আয়োজন করে ঢাকাস্থ আলফাডাঙ্গা যুব সমিতি। ওই দুই শিক্ষার্থী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শিক্ষার্থী ইয়াকুব আলী আলফাডাঙ্গার নগরকান্দা গ্রামের ছেলে। পরিবারের আর্থিক অনটনের কারণে রাজমিস্ত্রির কাজ করে তিনি পড়াশোনা চালিয়ে গেছেন। পরিশ্রম সার্থক হয়েছে। ২০১৭ সালে নওয়াপাড়া হাইস্কুল থেকে এসএসসিতে জিপিএ ফাইভ নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। তার বাবা মোহাম্মদ খোকন মোল্লা পেশায় কৃষক। চার ভাই, তিন বোনের মধ্যে ইয়াকুব দ্বিতীয়। তিনি বড় হয়ে চিকিৎসক হতে চান।

আশিকুজ্জামান পারভেজ মিঠাপুর কলেজে পড়েন। তার বাবা মোহাম্মদ শাহজাহান মোল্লাও কৃষক। সংসারে তারা দুই ভাই এক বোন। অভাবের সংসারে তার পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া কঠিনই বটে। কিন্তু পারভেজ বেশ মেধাবী। এবছর আলফাডাঙ্গা আরিফুজ্জামান পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসিতে জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন। তিনি প্রকৌশলী হতে চান। তার এই স্বপ্ন বাস্তবায়নে এগিয়ে এসেছে কাঞ্চন মুন্সি ফাউন্ডেশন।

প্রতিষ্ঠার পর থেকেই কাঞ্চন মুন্সি ফাউন্ডেশন শিক্ষাখাতে ব্যাপক অবদান রাখছে। গরিব মেধাবী শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার দায়িত্ব নেয়ার পাশাপাশি তাদের শিক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় ব্যয়ভার বহন করে আসছে। প্রতিবছর আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী ও মধুখালী উপজেলার একটি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক শিক্ষার্থীর এসএসসি ও এইচএসসির ফরমপূরণসহ বিভিন্নখাতে আর্থিক সহায়তা করে আসছে। এছাড়া দুস্থদের চিকিৎসা, প্রশিক্ষণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টিসহ নানামুখী কার্যক্রম পরিচালনা করছে মানবকল্যাণে প্রতিষ্ঠিত সংস্থাটি।

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন