বিনোদনের সঙ্গে ‘টয়লেট’ ব্যাপারটা কি যায়? এই বিচার-বিশ্লেষণে যাওয়ার আগে বলে রাখি, আজ কথা হবে বলিউডের নতুন ছবি টয়লেট: এক প্রেম কথা নিয়ে। তাই ‘টয়লেট’ সিনেমা নিয়ে কথা এগোতেই পারে। এ ছবি মুক্তি পাবে আগামীকাল। কিন্তু এরই মধ্যে নানা তর্কে-বিতর্কে জড়িয়ে ছবিটি হয়ে উঠেছে বি-টাউনের আলোচিত ব্যাপার।

ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়ার পর এটাই হবে অভিনেতা অক্ষয় কুমারের মুক্তি পাওয়া প্রথম সিনেমা। তাই টয়লেট: এক প্রেম কথা নিয়ে আগ্রহের কমতি নেই দর্শকের। যে সামাজিক বার্তা নিয়ে ছবিটি আসছে, তা দেশের চলতি সরকারের গুরুত্বপূর্ণ একটি কর্মকাণ্ডকে তুলে ধরেছে। নিন্দুকেরা বলছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির স্বচ্ছ ভারত অভিযানের এটি একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রচারণা, যার প্রযোজনা করেছেন অক্ষয়পত্নী টুইঙ্কেল খান্না, অভিনয় করেছেন অক্ষয়। তাই এ বছর জাতীয় পুরস্কার অর্জনকে অনেকে ‘টয়লেট’ ছবির জন্য মোদির কাছ থেকে পাওয়া অক্ষয়ের ‘ইনসেনটিভ’ হিসেবে দেখছেন। তবে অক্ষয়ভক্তরা এসব গুজব উড়িয়ে দিচ্ছেন হাওয়ায়। তাঁদের কাছে রুস্তমজলি এলএলবির পর ‘টয়লেট’ সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে করা অক্ষয়ের আরও একটি ছবি।

তবে মোদির স্বচ্ছ ভারত অভিযানের সমর্থনে ছবি বানিয়েছেন বলে সব সম্ভাবনার দ্বার খুলে গেছে অক্ষয়ের জন্য—এমনটা ভাবার কারণ নেই। এত কিছুর পরও দুর্যোগের ঘনঘটা কাটিয়ে সুগম হয়নি ‘টয়লেট’-এর পথ। মুক্তির প্রায় মাসখানেক আগেই অনলাইনে এ ছবির একটি প্রিভিউ কপি ফাঁস হয়ে যায়। বিপাকে পড়েন নির্মাতা-প্রযোজক-শিল্পীরা। তবে অক্ষয়ের একনিষ্ঠ ভক্তরা সেই ফাঁস ছবি বিনা মূল্যে পেলেও তা দেখা থেকে নিজেদের বিরত রেখেছেন। ‘টয়লেট’ নিয়ে সবার উচ্ছ্বাসই বলে দিচ্ছে, একটা উদ্ভট বিষয়বস্তু নিয়ে বানানো ছবি গ্রহণ করতে কত উদ্‌গ্রীব বলিউডের দর্শকেরা। অক্ষয়ের ফেসবুক, টুইটারে সবার শুভেচ্ছা বার্তা তা-ই জানান দিচ্ছে। একজন সাধারণ গ্রাম্য ব্যক্তির একটি শৌচাগার বানানোর কাহিনি দেখতে সবার এমন উচ্ছ্বাস বলিউডে ভিন্ন ধারার ছবির জন্য বয়ে আনছে সুবাতাস।

বলিউড হাঙ্গামা, স্কুপহুপ ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস অবলম্বনে

স/মা

print

Facebook Comments

এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা কিংবা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি

আরও পড়ুন