সালথার রামকান্তপুর গ্রামের রাধুখালী সেতুটি যেন মরণ ফাঁদ

সালথার রামকান্তপুর গ্রামের রাধুখালী সেতুটি যেন মরণ ফাঁদ

আবু নাসের হুসাইন, সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি: ফরিদপুরের সালথায় রামকান্তপুর বাজার-ময়েন্দিয়া সড়কের রাধুখালি খালের ওপর নির্মিত সেতুটি এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। সেতুর দুই পাশে নেই কোন রেলিং। বেশিরভাগ পিলারের সিমেন্ট ওঠে গেছে। বেরিয়ে গেছে রড। একপাশে ভেঙ্গে যাওয়া বড় একটি অংশে কাঠের মাচল বিছিয়ে জোড়াতালি দিয়ে পার হচ্ছে হাজারো মানুষ ও যানবাহন। যেকোনো সময় সেতুটি ভেঙ্গে পড়ে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

রামকান্তুপুর গ্রামের বাসিন্দা নজরুল তালুকদার বলেন, রামকান্তপুর বাজার-ময়েনদিয়া সড়কের সাবেক ইউপি সদস্য আবু নাসেরের বাড়ির সামনে রাধুখালি খালের ওপর সেতুটি নির্মিত হয় ৪০ বছর আগে। দীর্ঘ ৭/৮ বছর ধরে সেতুটি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে রয়েছে।

www.linkhaat.com

ঝুঁকিপূর্ণ সেতুটি পুন:নির্মাণের উদ্যোগ হিসেবে মাঝে মাঝে কর্মকর্তা মাটি পরীক্ষা করে নিয়ে গেলেও এখনও ভাল ফলের মুখ দেখেনি গ্রামবাসী। মনে আতঙ্ক-ভয় আর ঝুঁকি নিয়ে সেতুর ওপর দিয়ে প্রতিদিন হাজারো মানুষ ও যানবাহন চলাচল করছে। সেতুটি যেকোনো মুহুর্তে ভেঙ্গে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

মাসুদুর রহমান খান নামে আরেক ব্যক্তি বলেন, সেতুটি ওপর দিয়ে চলাচলের সময় ভয়ে থাকতে হয়, কখন যেন এটি ভেঙ্গে পড়ে। এমন আশঙ্কা নিয়ে ওই সেতুর ওপর দিয়ে জেলা-উপজেলা সদরে নিয়মিত চলাচলা করছে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ওয়াদুদ মাতুব্বর বলেন, উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ওই সেতুটি দুই বার সংস্কার করা হয়েছে। সেতুটি এখন দ্রুত পুন:নির্মাণ না করলে ভেঙ্গে পড়তে পারে।

উপজেলা প্রকৌশলী তৌহিদুর মো. রহমান বলেন, সেতুটি পুন:নির্মাণের জন্য মাটি পরিক্ষা করা হয়েছে। দ্রুতই সেতুটি পুন:নির্মাণ করা হবে।

স/ম

Print Friendly, PDF & Email
Spread the love

Warning: A non-numeric value encountered in /home/chomoknews/public_html/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 997