শৈলকুপায় বিষধর সাপের কামড়ে অন্ত:স্বত্তা নারী ও যুবকের মৃত্যু

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার দোহারো গ্রামে সাপের কামড়ে শরিফা খাতুন (২২) নামের অন্ত:স্বত্তা এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকালে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। শরিফা খাতুন দোহারো গ্রামের রাশিদুল ইসলামের স্ত্রী।

www.linkhaat.com

শৈলকুপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, রাতে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিল ৭ মাসের অন্ত:স্বত্তা শরিফা খাতুন। রাত ৩ টার দিকে বিষাক্ত সাপ তাকে কামড় দেয়। সকালে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। শরিফা খাতুনের ৩ বছরে এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

এদিকে শৈলকুপায় বিধষর সাঁপের কামড়ে আবারো এক যুবকরে মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার উমেদপুর ইউনিয়নের তামিনগর গ্রামে। নিহত সোহাগ মন্ডল (২৪) তামিনগর গ্রামের দাউদ মন্ডলের ছেলে। স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার রাতে সোহাগ নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলো। রাত আনুমানিক ১২টার দিকে তার বিছানায় সাঁপ উঠে।

এসময় সোহাগ নড়াচড়া করলে তাকে কামড় দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায় সাঁপটি। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় ওঝার কাছে নিয়ে যায়। ওঝা শনিবার দুপুর পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়ে বিষ নামাতে ব্যর্থ হয়। পরে শনিবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়। স্থানীয়দের ধারনা কালাচ নামে পরিচিত বিষধর সাঁপ তাকে কামড়েছে।

শৈলকুপায় একই জাতের সাঁপের কামড়ে একের পর এক শিশু, মহিলা ও যুবকসহ অসংখ্য মানুষের মৃত্যুর ঘটনায় জনমনে আতংক বিরাজ করছে। শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

স/ম

Print Friendly, PDF & Email