মুন্সীগঞ্জে পুলিশকে লক্ষ্য করে ব্যাপক ককটেল নিক্ষেপ

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার চরকেওয়ার ইউনিয়নের খাসকান্দি ও ছোট মোল্লাকান্দি গ্রামে আ”লীগের দু”গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয় মধ্য রাত থেকে।

www.linkhaat.com

সোমবার সকাল ৮টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার জন্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল খন্দকার আশফাকুজ্জামান, সদর থানার ওসি আনিচুর রহমানসহ অর্ধ শতাধিক পুলিশ খাসকান্দি গ্রামে গিয়ে সংঘর্ষ জড়িতদের ধাওয়া করে।

এ সময় আহাম্মদ আলী,নজরুল গ্রুপের লোকজন পুলিশকে লক্ষ্য করে ১০/১৫ ককটেল নিক্ষেপ করে। পুলিশ আত্ন-রক্ষার্থে ফাঁকা গুলি ছুড়লে হামলাকারীরা কৃষি জমিতে নেমে পড়ে। জমিতে পানি এবং বড় বড় ধইঞ্চা থাকায় পুলিশ তাদেকে পাকরাও করতে পারেনি।

সেখান থেকেও গ্রামের উপর দাঁড়িয়ে থাকা পুশিকে লক্ষ্য করে বেশ কয়েকটি ককটেল নিক্ষেপ করে তারা। এ সময় স্থানীয়দের সহায়তায় ১৭ জন ককটেল নিক্ষেপকারীকে শনাক্ত করে পুলিশ। হামলাকারীদের দেশীয় অস্ত্র, বালতি ভর্তি ককটেল নিয়ে ফসলি জমিতে অবস্থান করতে দেখা গেছে।

তবে এ ঘটনায় পুলিশের কেউ হাতাহত হয়নি। এর আগে হামলাকারীরা ভোর রাত থেকে দুটি গ্রামে হামলা চালিয়ে প্রায় ২০ টি বাড়ীতে ব্যাপক ভাংচুর ও ককটেল বিস্ফোরন ঘটায়।এতে কমপক্ষে ৮ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি আনিচুর রহমান জানান, পুলিশ খাসকান্দি গ্রামে অবস্থান করে হামলাকারীদের ধাওয়া দেয়। এ সময় নজরুল হাওলাদারের লোকজন পুলিশকে লক্ষ্য করে ব্যাপক ককটেল বিস্ফোরন ঘটায়। পুলিশ পাল্টা জবাবে ফাঁক গুলি ছুড়লে হামলাকারীরা কৃষি জমিতে গিয়ে অবস্থান নেয়।

সেখান থেকেও তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে বেশ কয়েকটি ককটেল চার্জ করে । এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।

স/এষ্

700
Print Friendly, PDF & Email