ট্রাম্পের ভুলভাল পরামর্শের পর ‘সতর্কতা জারি’

নিউজ ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেওয়া পরামর্শ নিয়ে ‘সতর্কতা জারি’ করেছেন অনেক বিশেষজ্ঞ।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, ট্রাম্পের দেওয়া পরামর্শ অত্যন্ত বিপজ্জনক ও প্রাণঘাতী হতে পারে।

www.linkhaat.com

পরিষ্কারক পণ্য লাইসোল ও ডেটল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের মালিক রেকিট বেনকিজার বলেন, কোন অবস্থাতেই তাদের পণ্য খাওয়া বা ইনজেকশন দেওয়া যাবে না।

এছাড়া বিভিন্ন চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জীবাণুনাশক পান করতে বা ইনজেকশন যেন কেউ না দেয় তার আহ্বান জানিয়েছেন।

ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি অফ ইস্ট এংলিয়ার মেডিসিন প্রফেসর পল হান্টার বলেন, করোনার চিকিৎসা নিয়ে এটি এখন পর্যন্ত সবেচেয়ে বিপজ্জনক ও বাজে পরামর্শ।

কেউ জীবাণুনাশক ইনজেকশন দিলে তার মৃত্যু হতে পারে, বলেন এই বিশেষজ্ঞ।

পল হান্টার বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, এটি চূড়ান্তভাবে দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয়, কেননা দুঃখের বিষয়, বিশ্বজুড়ে অনেকে আছেন যারা এ ধরণের বাজে কথা বিশ্বাস করতে পারেন এবং এটি করতে চেষ্টা করবেন।

আরেক ফুসফুস রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ভিন গুপ্ত এনবিসি নিউজ’কে বলেছেন, ‘শরীরে যেকোনও জীবাণুনাশক ঢোকানো বা খাওয়ানোর ধারণা দায়িত্বজ্ঞানহীন ও বিপজ্জনক।

বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউজে করোনা টাস্কফোর্সের এক ব্রিফিংয়ে সরকারি একজন কর্মকর্তা একটি গবেষণার ফলাফল হাজির করেন। তিনি দাবি করেন, তাদের ঐ গবেষণায় ইঙ্গিত পাওয়া গেছে সূর্যের আলো এবং তাপে করোনাভাইরাস দ্রুত দুর্বল হয়ে পড়ে।

ঐ গবেষণার ফলাফলে আরও বলা হয় মুখের লালা এবং শ্বাসযন্ত্রের ফ্লুইডের মধ্যে ব্লিচ বা জীবাণুনাশক দিয়ে পাঁচ মিনিটের মধ্যে এই ভাইরাস মেরে ফেলা যায়। আইসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল (অধিকতর শক্তিশালী জীবাণুনাশক) দিয়ে আরো দ্রুত ভাইরাস ধ্বংস করা যায়।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা দপ্তরের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের অস্থায়ী প্রধান উইলিয়াম ব্রান্টের কাছ থেকে এসব কথা শোনার পরপরই উৎসাহিত হয়ে পড়েন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউজের করোনাভাইরাস বিষয়ক রেসপন্স টিমের সমন্বয়কারী ড. ডেবরা ব্রিক্সের দিকে তাকিয়ে ট্রাম্প বলেন, সুতরাং আমরা যদি দেহকে আলট্রা-ভায়েলেট বা অন্য কোনো শক্তিশালী রশ্মির নিচে রাখি – তাহলে কি হয় আপনারা তা পরীক্ষা করে দেখুন।

তিনি আরও বলেন, ঐ আলোক রশ্মি চামড়ার ভেতর দিয়ে বা অন্য কোনো উপায়ে রোগীর শরীরের ভেতর ঢুকিয়ে তার ফল কী হয়, তাও আপনারা দেখুন। এরপর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প শরীরে জীবাণুনাশক প্রয়োগের পরামর্শ দেন।

ট্রাম্প বলেন, জীবাণুনাশক মিনিটের মধ্যে ভাইরাস ধ্বংস করে দিতে পারে। আমরা কি এমন কিছু করতে পারি যাতে দেহের মধ্যে জীবাণুনাশক ঢুকিয়ে দেহকে একেবারে জীবাণুমুক্ত করে ফেলা সম্ভব হয়। সেটা পরীক্ষা করে দেখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে।

এসব বক্তব্যের পর থেকে কড়া সমালোচনায় পড়েছেন মার্কিন এই প্রেসিডেন্ট।

সূত্রঃ বিবিসি, এনবিসি, এনডিটিভি 

Print Friendly, PDF & Email
Spread the love

Warning: A non-numeric value encountered in /home/chomoknews/public_html/wp-content/themes/Newspaper/includes/wp_booster/td_block.php on line 997