ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাশের পর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন কার্যকর আছে কী?

এডভোকেট মোঃ কাওসার হোসাইন : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির নিরাপত্তা প্রদান ও আনুষঙ্গিক বিষয়াদি সম্পর্কে বিধান প্রনয়নের জন্য ২০০৬ সালে পাশ হয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬।

www.linkhaat.com

আইনটি কার্যকর হবার পর উক্ত আইনের কয়েকটি ধারা সম্পর্কে সর্বমহলে আপত্তি শুরু হওয়ায় এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিতকরন ও ডিজিটাল মাধ্যমে সংঘটিত অপরাধসমূহ সনাক্তকরন, প্রতিরোধ,দমন, ও বিচার এবং আনুষঙ্গিক বিষয়াদি সম্পর্কে বিধি প্রনয়নের উদ্দেশ্য ২০১৮ সালে পাশ হয় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮।

অনেকে ধারানা করে থাকেন বা বলেন যে ২০১৮ সালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটি পাশ হবার পর পূর্বের পাশ হওয়া ২০০৬ সালের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন বাতিল হয়ে গেছে বা বাতিল হয়ে গেছে।এমন ধারনা বা বক্তব্যর আইনগত কোন ভিত্তি আছে কিনা তা আইনগতভাবে বিশ্লেষন করলে পাওয়া যায় যে বর্তমানে বাংলাদেশে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ দুটো আইনই বিদ্যমান ও কার্যকর আছে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাশের ফলে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর কয়েকটি ধারা বিলুপ্ত হয়েছে মাত্র কিন্তু পুরো আইনটি বাতিল হয়নি অর্থাৎ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর যেকয়টি ধারা বিলুপ্ত করা হয়েছে সেগুলো ব্যতীত বাকি ধারাগুলো সহ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ বর্তমানেও বলবৎ রয়েছে।

যেমন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর ৬৮ ধারা মোতাবেক গঠিত সাইবার ট্রাইবুনাল বর্তমানেও বিদ্যমান এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অধীনে সংঘটিত অপরাধসমূহের বিচার করার জন্য “ট্রাইবুনাল”বলতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০১৮ এর ৬৮ ধারা মোতাবেক গঠিত “সাইবার ট্রাইবুনাল”কে বুঝায়,একইভাবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অধীনে “আপীল ট্রাইবুনাল” বলতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর ৮২ ধারা মোতাবেক গঠিত “সাইবার আপীল ট্রাইবুনাল” কে বুঝায়।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ এর ২(জ) ও ২(ক) ধারায় উক্ত বিষয়গুলো সুস্পষ্ট করা আছে।তাহলে আমাদের এটা জানা গুরুত্বপূর্ন যে,ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ পাশের ফলে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর কোন কোন ধারা বিলুপ্ত হয়েছে বা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের কোন কোন বিধান বলবৎ রয়েছে।ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ তে এবিষয়ে সুনিদির্ষ্ট বিধান রয়েছে,উক্ত আইনের ৬১ ধারায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ পাশের ফলে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর কোন কোন ধারা বিলুপ্ত হবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ এর ৬১ ধারার বিধান অনুযায়ী,-ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ কার্যকর হবার সঙ্গে সঙ্গে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর ধারা ৫৪,৫৫,৫৬,৫৭ ও ৬৬ বিলুপ্ত হবে,তবে উল্লেখিত ধারাসমূহের অধীন সাইবার ট্রাইবুনালে সূচীত বা গৃহীত কোনো proceedings বা কোনো মামলা যেকোনো পর্যায়ে বিচারাধীন থাকলে উহা এমনভাবে চলবে যেন উক্ত ধারাসমূহ বিলুপ্ত হয় নাই।

উপরোক্ত আইনগত বিশ্লেষন থেকে ইহা স্পষ্ট যে,ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৬১ ধারা মোতাবেক বিলুপ্তকৃত উল্লেখিত ধারাসমূহ ব্যাতীত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এর বাকি ধারাসমূহ এবং বিধানাবলী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ পাশ হবার পরেও বিদ্যমান ও কার্যকর।

এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সংঘটিত কোন অপরাধের বিচার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন,২০০৬ এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন,২০১৮ উভয় আইনের বিধানাবলী প্রযোজ্য এবং কার্যকর।

লেখকঃএডভোকেট মোঃ কাওসার হোসাইন, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি ও আইনগ্রন্থপ্রনেতা।

স/এষ্

700
Print Friendly, PDF & Email